ঢাকা ০৪:৪৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কের নাম রাখায় ছাত্র কারাগরে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:১৫:১০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১০ মার্চ ২০২৪ ৭০ বার পড়া হয়েছে

নিউজ ডেস্ক:


কিয়েভপন্থি স্লোগান দিয়ে ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কের নাম রাখায় রাশিয়ায় এক ছাত্রকে ১০ দিনের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। দণ্ডপ্রাপ্ত ওই ব্যক্তি মস্কো বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র।

রবিবার (১০ মার্চ) বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, মস্কো বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই ছাত্র তার ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কের নাম রাখেন স্লাভা ইউক্রেনি, যার অর্থ ইউক্রেনের গর্ব। এ অপরাধে গত বুধবার (৬ মার্চ) মস্কো পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। পরেরদিন তাকে দোষী সাব্যস্ত করে ১০ দিনের কারাদণ্ড দেয় মস্কোর একটি আদালত।

আদালত জানিয়েছে, ওই ছাত্র স্লাভা ইউক্রেনি স্লোগানকে প্রচার করছে। কারণ তার ওয়াই-ফাই রেঞ্জের মধ্যে অসংখ্য ব্যবহারকারী ওই নেটওয়ার্ক ব্যবহার করছে। নাৎসি বা চরমপন্থি সংগঠনের প্রতীক প্রকাশ্যে ব্যবহার করায় তাকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে।

আরআইএ-নভোস্তির খবরে বলা হয়েছে, বুধবার সকালে মস্কোর একজন পুলিশ কর্মকর্তা রুশ কর্তৃপক্ষকে ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কের নামটি জানান। এরপর ওই ছাত্রকে গ্রেপ্তার করা হয়। আদালতের নথি অনুসারে, কর্মকর্তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের বাসস্থানের মধ্যে তার কক্ষটি পরিদর্শন করেছেন এবং তার ব্যক্তিগত কম্পিউটার এবং একটি ওয়াই-ফাই রাউটার খুঁজে পেয়েছেন।

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে আক্রমণ শুরুর পর থেকে রুশ কর্মকর্তারা প্রকাশ্যে যুদ্ধের সমালোচনা করা বা ইউক্রেনীয় বাহিনীর প্রতি সমর্থন প্রদর্শনকারীদের বিরুদ্ধে কারাদণ্ড বা জরিমানা জারি করেছে।


প্রসঙ্গনিউজ২৪/জে.সি

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কের নাম রাখায় ছাত্র কারাগরে

আপডেট সময় : ০৫:১৫:১০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১০ মার্চ ২০২৪

নিউজ ডেস্ক:


কিয়েভপন্থি স্লোগান দিয়ে ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কের নাম রাখায় রাশিয়ায় এক ছাত্রকে ১০ দিনের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। দণ্ডপ্রাপ্ত ওই ব্যক্তি মস্কো বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র।

রবিবার (১০ মার্চ) বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, মস্কো বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই ছাত্র তার ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কের নাম রাখেন স্লাভা ইউক্রেনি, যার অর্থ ইউক্রেনের গর্ব। এ অপরাধে গত বুধবার (৬ মার্চ) মস্কো পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। পরেরদিন তাকে দোষী সাব্যস্ত করে ১০ দিনের কারাদণ্ড দেয় মস্কোর একটি আদালত।

আদালত জানিয়েছে, ওই ছাত্র স্লাভা ইউক্রেনি স্লোগানকে প্রচার করছে। কারণ তার ওয়াই-ফাই রেঞ্জের মধ্যে অসংখ্য ব্যবহারকারী ওই নেটওয়ার্ক ব্যবহার করছে। নাৎসি বা চরমপন্থি সংগঠনের প্রতীক প্রকাশ্যে ব্যবহার করায় তাকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে।

আরআইএ-নভোস্তির খবরে বলা হয়েছে, বুধবার সকালে মস্কোর একজন পুলিশ কর্মকর্তা রুশ কর্তৃপক্ষকে ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কের নামটি জানান। এরপর ওই ছাত্রকে গ্রেপ্তার করা হয়। আদালতের নথি অনুসারে, কর্মকর্তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের বাসস্থানের মধ্যে তার কক্ষটি পরিদর্শন করেছেন এবং তার ব্যক্তিগত কম্পিউটার এবং একটি ওয়াই-ফাই রাউটার খুঁজে পেয়েছেন।

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে আক্রমণ শুরুর পর থেকে রুশ কর্মকর্তারা প্রকাশ্যে যুদ্ধের সমালোচনা করা বা ইউক্রেনীয় বাহিনীর প্রতি সমর্থন প্রদর্শনকারীদের বিরুদ্ধে কারাদণ্ড বা জরিমানা জারি করেছে।


প্রসঙ্গনিউজ২৪/জে.সি