ঢাকা ০৫:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তুরস্ক থেকে আনা সুদৃশ্য পোলের সড়কবাতির আলোয় আলোকিত চৌদ্দপাই

খ্রীষ্টফার জয়
  • আপডেট সময় : ০৫:৪৬:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২৩ ৪৩ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক:


তুরস্ক থেকে আনা সুদৃশ্য ও দৃষ্টিনন্দন পোল ও সড়কবাতির আলোয় আলোকিত হলো রাজশাহী মহানগরীর একটি সড়ক। নগরীর তালাইমারী মোড় হতে কাটাখালী বাজার পর্যন্ত সড়কটি সুদৃশ্য ও দৃষ্টিনন্দন পোলে সড়কবাতিতে আলোকায়নের অংশ হিসেবে প্রথম পর্যায়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে থেকে চৌদ্দপাই ফায়ার সার্ভিস মোড় পর্যন্ত আলোকায়নের উদ্বোধন করা হয়েছে। রবিবার (২৬ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৮টায় নগরীর বিহাস এলাকায় আনুষ্ঠানিকভাবে সড়কটির আলোকায়নের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।

এ সময় রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, আলোকায়নের দিক দিয়ে রাজশাহী শহরকে বিশ্বমানের শহরে পরিণত করা হচ্ছে। তুরস্ক থেকে আনা সুদৃশ্য ও ডেকোরেটিভ পোল ও সড়কবাতি নগরীর তালাইমারি থেকে কাটাখালি বাজার পর্যন্ত সড়কে স্থাপন করা হচ্ছে। প্রথম পর্যায়ে ৫০টি ডেকোরেটিভ পোলে আলোকায়ন করা হলো। আরো ১০০টি পোল জাহাজে করা আনা হচ্ছে। প্রতিটি পোলে সিটি কর্পোরেশনের মনোগ্রাম ও নাম রয়েছে। এই ধরনের পোল ও সড়কবাতি বাংলাদেশে আমরাই প্রথম এনেছি।

রাসিক মেয়র আরো বলেন, দিনের বেলা পরিচ্ছন্ন ঝকঝকে রাজশাহী আমরা উপহার দিয়েছি। আর রাতের রাজশাহী হচ্ছে আলোকসজ্জিত।এই আলোকায়নে নিরাপত্তা ও নগরীর সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি পাচ্ছে। সড়কটির কাজ সম্পন্ন শেষ হলে এটি দেখতে আসবেন অনেকে। সড়কের পাশে হোটেল, রেস্তোরা ও কফিশপ তৈরি হবে। সেখানে অনেক কর্মসংস্থানও হবে। আমার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা। জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর কর্মসংস্থানের বিষয়ে জোর প্রচেষ্টা চালানো হবে। আপনারা দোয়া করবেন, যাতে আমি এই কাজে সফল হতে পারি।

উদ্বোধনকালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য এবং যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ডা. আনিকা ফারিহা জামান অর্ণা, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের ২৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহের হোসেন সুজা, ৩০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. আলাউদ্দিন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রপ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. রেজভী আহমেদ ভূঁইয়া, নির্বাহী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) এবিএম আসাদুজ্জামান সুইট, স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান বাবু, সাধারণ সম্পাদক আসাদুল্লা-হিল-গালিব সহ সংশ্লিষ্টরা ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, রাজশাহী মহানগরীর সমন্বিত নগর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ৯৩ কোটি ৪৮ লাখ টাকা ব্যয়ে তালাইমারী মোড় হতে কাটাখালী বাজার পর্যন্ত ৪.১০ কিলোমিটার অযান্ত্রিক যানবাহন লেনসহ ৬ লেন সড়ক নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে। ৪.১০ কিলোমিটার সড়কের মাঝে ২ মিটারের সড়ক ডিভাইডার। উভয়পার্শে^ ১০.৫ মিটার সড়ক। সড়কের উভয়পার্শ্বে ৩ মিটার অযান্ত্রিক যানবাহনের লেন ও উভয় পাশে ৩ মিটার ফুটপাত ও ড্রেন নির্মাণ কাজ চলছে। সড়কটিতে রাতে নাগরিকদের নিরাপদে চলাচল এবং নগরীর সৌন্দর্য্য বৃদ্ধিতে সড়কটিতে ১৫০টি সুদৃশ্য সড়কবাতির পোল বসানো হচ্ছে। ডেকোরেটিভ প্রতিটি পোলে থাকছে দুইটি করে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী এলইডি লাইট। প্রথম পর্যায়ের রাবির প্রধান ফটকের সামনে থেকে চৌদ্দপাই ফায়ার সার্ভিস মোড় পর্যন্ত সড়কে ৫০টি সুদৃশ্য পোলে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী দৃষ্টিনন্দন সড়কবাতির উদ্বোধন করা হলো।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

তুরস্ক থেকে আনা সুদৃশ্য পোলের সড়কবাতির আলোয় আলোকিত চৌদ্দপাই

আপডেট সময় : ০৫:৪৬:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক:


তুরস্ক থেকে আনা সুদৃশ্য ও দৃষ্টিনন্দন পোল ও সড়কবাতির আলোয় আলোকিত হলো রাজশাহী মহানগরীর একটি সড়ক। নগরীর তালাইমারী মোড় হতে কাটাখালী বাজার পর্যন্ত সড়কটি সুদৃশ্য ও দৃষ্টিনন্দন পোলে সড়কবাতিতে আলোকায়নের অংশ হিসেবে প্রথম পর্যায়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে থেকে চৌদ্দপাই ফায়ার সার্ভিস মোড় পর্যন্ত আলোকায়নের উদ্বোধন করা হয়েছে। রবিবার (২৬ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৮টায় নগরীর বিহাস এলাকায় আনুষ্ঠানিকভাবে সড়কটির আলোকায়নের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।

এ সময় রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, আলোকায়নের দিক দিয়ে রাজশাহী শহরকে বিশ্বমানের শহরে পরিণত করা হচ্ছে। তুরস্ক থেকে আনা সুদৃশ্য ও ডেকোরেটিভ পোল ও সড়কবাতি নগরীর তালাইমারি থেকে কাটাখালি বাজার পর্যন্ত সড়কে স্থাপন করা হচ্ছে। প্রথম পর্যায়ে ৫০টি ডেকোরেটিভ পোলে আলোকায়ন করা হলো। আরো ১০০টি পোল জাহাজে করা আনা হচ্ছে। প্রতিটি পোলে সিটি কর্পোরেশনের মনোগ্রাম ও নাম রয়েছে। এই ধরনের পোল ও সড়কবাতি বাংলাদেশে আমরাই প্রথম এনেছি।

রাসিক মেয়র আরো বলেন, দিনের বেলা পরিচ্ছন্ন ঝকঝকে রাজশাহী আমরা উপহার দিয়েছি। আর রাতের রাজশাহী হচ্ছে আলোকসজ্জিত।এই আলোকায়নে নিরাপত্তা ও নগরীর সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি পাচ্ছে। সড়কটির কাজ সম্পন্ন শেষ হলে এটি দেখতে আসবেন অনেকে। সড়কের পাশে হোটেল, রেস্তোরা ও কফিশপ তৈরি হবে। সেখানে অনেক কর্মসংস্থানও হবে। আমার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা। জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর কর্মসংস্থানের বিষয়ে জোর প্রচেষ্টা চালানো হবে। আপনারা দোয়া করবেন, যাতে আমি এই কাজে সফল হতে পারি।

উদ্বোধনকালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য এবং যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ডা. আনিকা ফারিহা জামান অর্ণা, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের ২৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহের হোসেন সুজা, ৩০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. আলাউদ্দিন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রপ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. রেজভী আহমেদ ভূঁইয়া, নির্বাহী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) এবিএম আসাদুজ্জামান সুইট, স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান বাবু, সাধারণ সম্পাদক আসাদুল্লা-হিল-গালিব সহ সংশ্লিষ্টরা ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, রাজশাহী মহানগরীর সমন্বিত নগর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ৯৩ কোটি ৪৮ লাখ টাকা ব্যয়ে তালাইমারী মোড় হতে কাটাখালী বাজার পর্যন্ত ৪.১০ কিলোমিটার অযান্ত্রিক যানবাহন লেনসহ ৬ লেন সড়ক নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে। ৪.১০ কিলোমিটার সড়কের মাঝে ২ মিটারের সড়ক ডিভাইডার। উভয়পার্শে^ ১০.৫ মিটার সড়ক। সড়কের উভয়পার্শ্বে ৩ মিটার অযান্ত্রিক যানবাহনের লেন ও উভয় পাশে ৩ মিটার ফুটপাত ও ড্রেন নির্মাণ কাজ চলছে। সড়কটিতে রাতে নাগরিকদের নিরাপদে চলাচল এবং নগরীর সৌন্দর্য্য বৃদ্ধিতে সড়কটিতে ১৫০টি সুদৃশ্য সড়কবাতির পোল বসানো হচ্ছে। ডেকোরেটিভ প্রতিটি পোলে থাকছে দুইটি করে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী এলইডি লাইট। প্রথম পর্যায়ের রাবির প্রধান ফটকের সামনে থেকে চৌদ্দপাই ফায়ার সার্ভিস মোড় পর্যন্ত সড়কে ৫০টি সুদৃশ্য পোলে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী দৃষ্টিনন্দন সড়কবাতির উদ্বোধন করা হলো।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি