ঢাকা ০১:০৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিপৎসীমার ৪৯ সেন্টিমিটর উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে বরিশালের নদীর পানি

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:৫৬:৪৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুলাই ২০২৩ ৮০ বার পড়া হয়েছে

নিউজ ডেস্ক:


বরিশাল বিভাগের কয়েকটি নদীর পানি আরও বেড়েছে। শুক্রবার দুপুরে ভোলার তজুমুদ্দিনে সুরমা ও মেঘনা নদীর পানি আগের দিনের চেয়ে বৃদ্ধি পেয়ে বিপৎসীমার (২.২২ মিটার) ৪৯ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। অপরদিকে দৌলতখান পয়েন্টে এই দুই নদীর পানি বিপৎসীমার (২.৭৫ মিটার) ৯ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে, হিজলার ধর্মগঞ্জ নদীর পানি বিপৎসীমার (২.৫০ মিটার) ২ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে এবং পিরোজপুরে বলেশ্বর নদীর পানি বিপৎসীমার ১ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। আরও কয়েকটি নদীর পানি বিপৎসীমা ছুই ছুই করে প্রবাহিত হয়েছে।

বিষখালী নদীর পানি পাথরঘাটা পয়েন্টে বিপৎসীমার (১.৮৫ মিটার) ৩ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে, ঝালকাঠী পয়েন্টে ৭ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে, বেতাগী পয়েন্টে ১০ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে এবং বরগুনা পয়েন্টে ২৬ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়।

মির্জাগঞ্জ পয়েন্টে বুড়িশ্বর ও পায়রা নদীর পানি বিপৎসীমার ২৭ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে, ভোলা খেয়াঘাটে তেতুলিয়া নদীর পানি ২৩ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে, উমেদপুর পয়েন্টে কঁচা নদীর পানি ৫ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে এবং কীর্তনখোলা নদীর পানি বিপৎসীমার ২৬ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়।

সন্ধ্যায় বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের হাইড্রগ্রাফি বিভাগের এক পরিসংখ্যানে এই তথ্য জানানো হয়েছে।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বিপৎসীমার ৪৯ সেন্টিমিটর উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে বরিশালের নদীর পানি

আপডেট সময় : ০৪:৫৬:৪৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুলাই ২০২৩

নিউজ ডেস্ক:


বরিশাল বিভাগের কয়েকটি নদীর পানি আরও বেড়েছে। শুক্রবার দুপুরে ভোলার তজুমুদ্দিনে সুরমা ও মেঘনা নদীর পানি আগের দিনের চেয়ে বৃদ্ধি পেয়ে বিপৎসীমার (২.২২ মিটার) ৪৯ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। অপরদিকে দৌলতখান পয়েন্টে এই দুই নদীর পানি বিপৎসীমার (২.৭৫ মিটার) ৯ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে, হিজলার ধর্মগঞ্জ নদীর পানি বিপৎসীমার (২.৫০ মিটার) ২ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে এবং পিরোজপুরে বলেশ্বর নদীর পানি বিপৎসীমার ১ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। আরও কয়েকটি নদীর পানি বিপৎসীমা ছুই ছুই করে প্রবাহিত হয়েছে।

বিষখালী নদীর পানি পাথরঘাটা পয়েন্টে বিপৎসীমার (১.৮৫ মিটার) ৩ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে, ঝালকাঠী পয়েন্টে ৭ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে, বেতাগী পয়েন্টে ১০ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে এবং বরগুনা পয়েন্টে ২৬ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়।

মির্জাগঞ্জ পয়েন্টে বুড়িশ্বর ও পায়রা নদীর পানি বিপৎসীমার ২৭ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে, ভোলা খেয়াঘাটে তেতুলিয়া নদীর পানি ২৩ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে, উমেদপুর পয়েন্টে কঁচা নদীর পানি ৫ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে এবং কীর্তনখোলা নদীর পানি বিপৎসীমার ২৬ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়।

সন্ধ্যায় বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের হাইড্রগ্রাফি বিভাগের এক পরিসংখ্যানে এই তথ্য জানানো হয়েছে।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি