ঢাকা ০১:০১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নেত্রকোনা উদীচী কর্মী মুক্তি রানীকে কুপিয়ে হত্যা: খুনি গ্রেফতার

খ্রীষ্টফার জয়
  • আপডেট সময় : ০৪:৪৭:০৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ মে ২০২৩ ৭২ বার পড়া হয়েছে

নেত্রকোনা উদীচী কর্মী মুক্তি রানীকে কুপিয়ে হত্যা: খুনি গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক:


নেত্রকোনা বারহাট্টা উপজেলায় এসএসসি পরিক্ষার্থী কে কুপিয়ে হত্যা করেছে এক যুবক। পরিক্ষার্থী রারহাট্টা উপজেলা বাউসী ইউনিয়ন এর প্রেম নগর ছালিপুরা গ্রামের নিখিল চন্দ্র বর্মের মেয়ে মুক্তি রানী (১৫) ।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ২ মে মঙ্গলবার দুপুর ১ টায় প্রেমনগর ছালিপুরা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে পরিক্ষা শেষ করে বাড়িতে যাওয়ার সময় একেই গ্রামের শামছু মিয়ার ছোট ছেলে মোঃ কাউছার মিয়া (১৮) রাস্তায় ধারালো অস্ত্র (দা) দিয়ে মাথায় কুপিয়ে মুক্তি রানী কে গুরুতর আহত করে।

প্রাথমিক অবস্থায় আত্মীয় স্বজন ও এলাকাবাসী দ্রুত মেয়েটিকে বারহাট্টা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে।

পরে তাকে দ্রুত এম্বুলেন্স করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মুক্তি রানীকে দেখে বিকাল ৫টায় মৃত বলে ঘোষণা করেন।

পরবর্তীতে এই বিষয়ে থানায় একটি মামলা করা হয় । পুলিশ সূত্রে জানা যায় আসামী মোঃ কাউছার মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, মুক্তি রানী বাংলাদেশ নারী প্রগতী সংঘের কিশোরী গ্রুুপের একজন সক্রিয় সদস্য ছিলেন । একই সাথে তিনি পারিবারিক ভাবে উদীচী কর্মীও ছিলেন।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

নেত্রকোনা উদীচী কর্মী মুক্তি রানীকে কুপিয়ে হত্যা: খুনি গ্রেফতার

আপডেট সময় : ০৪:৪৭:০৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ মে ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক:


নেত্রকোনা বারহাট্টা উপজেলায় এসএসসি পরিক্ষার্থী কে কুপিয়ে হত্যা করেছে এক যুবক। পরিক্ষার্থী রারহাট্টা উপজেলা বাউসী ইউনিয়ন এর প্রেম নগর ছালিপুরা গ্রামের নিখিল চন্দ্র বর্মের মেয়ে মুক্তি রানী (১৫) ।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ২ মে মঙ্গলবার দুপুর ১ টায় প্রেমনগর ছালিপুরা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে পরিক্ষা শেষ করে বাড়িতে যাওয়ার সময় একেই গ্রামের শামছু মিয়ার ছোট ছেলে মোঃ কাউছার মিয়া (১৮) রাস্তায় ধারালো অস্ত্র (দা) দিয়ে মাথায় কুপিয়ে মুক্তি রানী কে গুরুতর আহত করে।

প্রাথমিক অবস্থায় আত্মীয় স্বজন ও এলাকাবাসী দ্রুত মেয়েটিকে বারহাট্টা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে।

পরে তাকে দ্রুত এম্বুলেন্স করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মুক্তি রানীকে দেখে বিকাল ৫টায় মৃত বলে ঘোষণা করেন।

পরবর্তীতে এই বিষয়ে থানায় একটি মামলা করা হয় । পুলিশ সূত্রে জানা যায় আসামী মোঃ কাউছার মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, মুক্তি রানী বাংলাদেশ নারী প্রগতী সংঘের কিশোরী গ্রুুপের একজন সক্রিয় সদস্য ছিলেন । একই সাথে তিনি পারিবারিক ভাবে উদীচী কর্মীও ছিলেন।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি