ঢাকা ১১:৫৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজশাহীতে ঐতিহাসিক খাপড়া ওয়ার্ড দিবস পালিত

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:৩১:০২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৩ ৫০ বার পড়া হয়েছে

রাজশাহীতে ঐতিহাসিক খাপড়া ওয়ার্ড দিবস পালিত

নিজস্ব প্রতিবেদক:


রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে শ্রদ্ধা নিবেদন ও সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভার মধ্যে দিয়ে ঐতিহাসিক খাপড়া ওয়ার্ড দিবস পালন করেছে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির রাজশাহী জেলা ও মহানগর কমিটি।

সোমবার সকালে কারাগারের ভেতরে নির্মিত শহীদ বেদিতে প্রথমে দলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ও রাজশাহী-২ আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশার পক্ষে ও পরে জেলা ও মহানগর কমিটির পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ওয়ার্কার্স পার্টির নেতাকর্মীরা।

এসময় সেখানে একটি সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তারা বলেন, ১৯৫০ সালের ২৪ এপ্রিল রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের খাপড়া ওয়ার্ডে আন্দোলনরত কমিউনিস্ট বিপ্লবীরা পুলিশের গুলিতে নির্মমভাবে প্রাণ হারান। এই বীর শহীদরা যুগে যুগে তরুণ প্রজন্মের জন্য অফুরন্ত প্রেরণার উৎস। তারাই বর্তমান প্রজন্মের মানবিক ও সমাজতান্ত্রিক সমাজ-রাষ্ট্র বিনির্মাণের লড়াই-সংগ্রামে পথ দেখিয়েছেন।

কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন, ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য ও জেলার সভাপতি রফিকুল ইসলাম পিয়ারুল, কেন্দ্রীয় সদস্য ও মহানগরের সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ প্রামানিক দেবু, কেন্দ্রীয় সদস্য ও মহানগর সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য সাদরুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম আজাদ, আব্দুল মতিন, নাজমুল করিম অপু, জেলার সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মতিউর রহমান তপন, আদিবাসী নেতা বিমল চন্দ্র রাজোয়ার, মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির সদস্য মাসুম আক্তার অনিক, আব্দুল খালেক বকুল, মহানগর ছাত্রমৈত্রীর সাধারণ সম্পাদক বিজয় সরকার প্রমুখ।

নিম্নমানের খাবার ও বন্দি নির্যাতনের প্রতিবাদে অনশন ও আন্দোলন করায় ১৯৫০ সালের ২৪ এপ্রিল রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের খাপড়া ওয়ার্ডে গুলি চালায় তৎকালীন পুলিশ। এতে নিহত হন ময়মনসিংহের কমরেড সুখেন্দু ভট্টাচার্য, দিনাজপুরের বলরাম সিংহ, চাঁপাইনবাবগঞ্জের সুধীন ধর, কুষ্টিয়ার দেলোয়ার হোসেন ও হানিফ শেখ এবং খুলনার বিজন সেন ও আনোয়ার হোসেন। এরা সবাই কমিউনিস্ট পার্টির সক্রিয় কর্মী ছিলেন। সেই থেকে ওয়ার্কার্স পার্টিরসহ বাম সংগঠনগুলো আজকের দিনটি খাপড়া ওয়ার্ড দিবস পালন করে আসছে।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

রাজশাহীতে ঐতিহাসিক খাপড়া ওয়ার্ড দিবস পালিত

আপডেট সময় : ০৩:৩১:০২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক:


রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে শ্রদ্ধা নিবেদন ও সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভার মধ্যে দিয়ে ঐতিহাসিক খাপড়া ওয়ার্ড দিবস পালন করেছে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির রাজশাহী জেলা ও মহানগর কমিটি।

সোমবার সকালে কারাগারের ভেতরে নির্মিত শহীদ বেদিতে প্রথমে দলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ও রাজশাহী-২ আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশার পক্ষে ও পরে জেলা ও মহানগর কমিটির পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ওয়ার্কার্স পার্টির নেতাকর্মীরা।

এসময় সেখানে একটি সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তারা বলেন, ১৯৫০ সালের ২৪ এপ্রিল রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের খাপড়া ওয়ার্ডে আন্দোলনরত কমিউনিস্ট বিপ্লবীরা পুলিশের গুলিতে নির্মমভাবে প্রাণ হারান। এই বীর শহীদরা যুগে যুগে তরুণ প্রজন্মের জন্য অফুরন্ত প্রেরণার উৎস। তারাই বর্তমান প্রজন্মের মানবিক ও সমাজতান্ত্রিক সমাজ-রাষ্ট্র বিনির্মাণের লড়াই-সংগ্রামে পথ দেখিয়েছেন।

কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন, ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য ও জেলার সভাপতি রফিকুল ইসলাম পিয়ারুল, কেন্দ্রীয় সদস্য ও মহানগরের সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ প্রামানিক দেবু, কেন্দ্রীয় সদস্য ও মহানগর সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য সাদরুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম আজাদ, আব্দুল মতিন, নাজমুল করিম অপু, জেলার সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মতিউর রহমান তপন, আদিবাসী নেতা বিমল চন্দ্র রাজোয়ার, মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির সদস্য মাসুম আক্তার অনিক, আব্দুল খালেক বকুল, মহানগর ছাত্রমৈত্রীর সাধারণ সম্পাদক বিজয় সরকার প্রমুখ।

নিম্নমানের খাবার ও বন্দি নির্যাতনের প্রতিবাদে অনশন ও আন্দোলন করায় ১৯৫০ সালের ২৪ এপ্রিল রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের খাপড়া ওয়ার্ডে গুলি চালায় তৎকালীন পুলিশ। এতে নিহত হন ময়মনসিংহের কমরেড সুখেন্দু ভট্টাচার্য, দিনাজপুরের বলরাম সিংহ, চাঁপাইনবাবগঞ্জের সুধীন ধর, কুষ্টিয়ার দেলোয়ার হোসেন ও হানিফ শেখ এবং খুলনার বিজন সেন ও আনোয়ার হোসেন। এরা সবাই কমিউনিস্ট পার্টির সক্রিয় কর্মী ছিলেন। সেই থেকে ওয়ার্কার্স পার্টিরসহ বাম সংগঠনগুলো আজকের দিনটি খাপড়া ওয়ার্ড দিবস পালন করে আসছে।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি