ঢাকা ০৩:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মানুষ খেতে পায় না আর আওয়ামী লীগ নেতারা লুট করে বিদেশে সম্পদের পাহাড় গড়ছে : মান্না

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:৩৫:৫২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ মার্চ ২০২৪ ১৩ বার পড়া হয়েছে

নিউজ ডেস্ক:


নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, রোজার মাস, সিয়াম সাধনার মাস। এই মাসে ছাত্রলীগের গুন্ডারা বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের রোজাদার ছাত্রদের উপর হামলা চালিয়েছে। সরকার ইফতার পার্টি বন্ধ করেছে, এরা হচ্ছে জালিম। দেশের মানুষ খেতে পায় না, আওয়ামী লীগ নেতারা লুট করে বিদেশে সম্পদের পাহাড় গড়ছে।

আজ বুধবার কেন্দ্রীয় কার্যালয় সংলগ্ন বিজয় একাত্তর চত্বরে মাসব্যাপী গণইফতার কার্যক্রমে উপস্থিত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

এবি পার্টির কেন্দ্রীয় সহকারী সদস্য সচিব শাহ আব্দুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত গণ ইফতারে সভাপতিত্ব করেন পার্টির যুগ্ম আহবায়ক বিএম নাজমুল হক। বক্তব্য রাখেন পার্টির সদস্য সচিব মজিবুর রহমান মঞ্জু, নাগরিক ঐক্যের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল্লাহ্ কায়সার, সাংগঠনিক সম্পাদক কবির হাসান সহ এবি পার্টির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ।
মজিবুর রহমান মঞ্জু বলেন, সারাদেশে ভিক্ষুকের সংখ্যা বেড়েছে অথচ সরকার দেশে নাকি ভিক্ষুক নাই। এর মাধ্যমে মূলত তারা গরীব মানুষের অধিকারকে অস্বীকার করছে। এখন আমরা দেখছি অভাবের জ্বালায় রাস্তায় দাঁড়িয়ে মানুষ সন্তান বিক্রির কথা বলছে, যা আমরা দেখেছি ৭৪ সালে, যখন মানুষ কুকুর-বিড়ালের সাথে ডাস্টবিনে খাবার নিয়ে কাড়াকাড়ি করেছে। আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় আসে তখনই দুর্ভিক্ষ হয়, চুরি ছিনতাই শুরু হয়। মন্ত্রীরা বলে মানুষ নাকি সুখে শান্তিতে আছে, অথচ সম্মান না পেয়ে, সম্ভ্রম হারিয়ে মানুষ আত্মহত্যা করছে।

শহীদুল্লাহ্ কায়সার বলেন, আমরা একটি ফ্যাসীবাদী সরকারের অধীনে আছি। আমাদের কথা বলার অধিকার নাই, মানুষ বাজারে যেতে পারছেনা দ্রব্যমূল্যের কারণে। রমজানে মানুষ ঠিকমতো সেহরী করতে পারছেনা, ইফতার করতে পারছে না।

সভাপতির বক্তব্যে বিএম নাজমুল হক বলেন, ঢাকা শহরে লক্ষ লক্ষ মানুষ গৃহহীন, খাদ্যহীন যার দায়িত্ব সরকারের। অথচ আওয়ামী লীগ সরকার জনগণের দায়িত্ব নিয়ে নির্বিকার। তারা জনগণের ভোটের অধিকার হরণ করে, দেশের সম্পদ লুট করে বিলাবহুল জীবন যাপন করছে। এমপিদের বউরা বেগমপাড়ায় থাকে। এই সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত জনগণ তার অধিকার ফিরে পাবে না।

গণইফতারে আরও উপস্থিত ছিলেন এবি পার্টির যুগ্ম সদস্য সচিব ব্যারিস্টার আসাদুজ্জামান ফুয়াদ, আব্দুল্লাহ আল মামুন রানা, প্রচার সম্পাদক আনোয়ার সাদাত টুটুল প্রমুখ।


প্রসঙ্গনিউজ২৪/জে.সি

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

মানুষ খেতে পায় না আর আওয়ামী লীগ নেতারা লুট করে বিদেশে সম্পদের পাহাড় গড়ছে : মান্না

আপডেট সময় : ০৪:৩৫:৫২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ মার্চ ২০২৪

নিউজ ডেস্ক:


নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, রোজার মাস, সিয়াম সাধনার মাস। এই মাসে ছাত্রলীগের গুন্ডারা বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের রোজাদার ছাত্রদের উপর হামলা চালিয়েছে। সরকার ইফতার পার্টি বন্ধ করেছে, এরা হচ্ছে জালিম। দেশের মানুষ খেতে পায় না, আওয়ামী লীগ নেতারা লুট করে বিদেশে সম্পদের পাহাড় গড়ছে।

আজ বুধবার কেন্দ্রীয় কার্যালয় সংলগ্ন বিজয় একাত্তর চত্বরে মাসব্যাপী গণইফতার কার্যক্রমে উপস্থিত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

এবি পার্টির কেন্দ্রীয় সহকারী সদস্য সচিব শাহ আব্দুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত গণ ইফতারে সভাপতিত্ব করেন পার্টির যুগ্ম আহবায়ক বিএম নাজমুল হক। বক্তব্য রাখেন পার্টির সদস্য সচিব মজিবুর রহমান মঞ্জু, নাগরিক ঐক্যের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল্লাহ্ কায়সার, সাংগঠনিক সম্পাদক কবির হাসান সহ এবি পার্টির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ।
মজিবুর রহমান মঞ্জু বলেন, সারাদেশে ভিক্ষুকের সংখ্যা বেড়েছে অথচ সরকার দেশে নাকি ভিক্ষুক নাই। এর মাধ্যমে মূলত তারা গরীব মানুষের অধিকারকে অস্বীকার করছে। এখন আমরা দেখছি অভাবের জ্বালায় রাস্তায় দাঁড়িয়ে মানুষ সন্তান বিক্রির কথা বলছে, যা আমরা দেখেছি ৭৪ সালে, যখন মানুষ কুকুর-বিড়ালের সাথে ডাস্টবিনে খাবার নিয়ে কাড়াকাড়ি করেছে। আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় আসে তখনই দুর্ভিক্ষ হয়, চুরি ছিনতাই শুরু হয়। মন্ত্রীরা বলে মানুষ নাকি সুখে শান্তিতে আছে, অথচ সম্মান না পেয়ে, সম্ভ্রম হারিয়ে মানুষ আত্মহত্যা করছে।

শহীদুল্লাহ্ কায়সার বলেন, আমরা একটি ফ্যাসীবাদী সরকারের অধীনে আছি। আমাদের কথা বলার অধিকার নাই, মানুষ বাজারে যেতে পারছেনা দ্রব্যমূল্যের কারণে। রমজানে মানুষ ঠিকমতো সেহরী করতে পারছেনা, ইফতার করতে পারছে না।

সভাপতির বক্তব্যে বিএম নাজমুল হক বলেন, ঢাকা শহরে লক্ষ লক্ষ মানুষ গৃহহীন, খাদ্যহীন যার দায়িত্ব সরকারের। অথচ আওয়ামী লীগ সরকার জনগণের দায়িত্ব নিয়ে নির্বিকার। তারা জনগণের ভোটের অধিকার হরণ করে, দেশের সম্পদ লুট করে বিলাবহুল জীবন যাপন করছে। এমপিদের বউরা বেগমপাড়ায় থাকে। এই সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত জনগণ তার অধিকার ফিরে পাবে না।

গণইফতারে আরও উপস্থিত ছিলেন এবি পার্টির যুগ্ম সদস্য সচিব ব্যারিস্টার আসাদুজ্জামান ফুয়াদ, আব্দুল্লাহ আল মামুন রানা, প্রচার সম্পাদক আনোয়ার সাদাত টুটুল প্রমুখ।


প্রসঙ্গনিউজ২৪/জে.সি