ঢাকা ০৭:২০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশের নাগরিকদের জন্য ই-ভিসা চালু করেছে সৌদি আরব

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:২৮:৪০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১ মে ২০২৩ ৪৩ বার পড়া হয়েছে

বাংলাদেশের নাগরিকদের জন্য ই-ভিসা চালু করেছে সৌদি আরব

নিউজ ডেস্ক:


বাংলাদেশের নাগরিকদের জন্য ই-ভিসা চালু করেছে সৌদি আরব। ফলে এখন থেকে সৌদি আরবে যেতে আর স্টিকার ভিসার প্রয়োজন হবে না।

সোমবার ঢাকার সৌদি দূতাবাসে এ ই-ভিসার উদ্বোধন করা হয়।

ই-ভিসা উদ্বোধন উপলক্ষে দূতাবাসে বক্তব্য দেন ঢাকায় নিযুক্ত সৌদি রাষ্ট্রদূত ঈসা বিন ইউসুফ আল দুহাইলান।
অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) মহাপরিচালক শহীদুল আলম, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পশ্চিম এশিয়া অনুবিভাগের মহাপরিচালক শফিকুর রহমান প্রমুখ।

এ সময় সৌদি রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশের নাগরিকরা আজ থেকে ই-ভিসা নিয়ে সৌদি আরব যেতে পারবেন। আজ একটি ঐতিহাসিক দিন। আর স্টিকার ভিসার প্রয়োজন হবে না। এটা অনেক সহজ হবে।

তিনি বলেন, আগে বাংলাদেশিদের ওমরাহর জন্য ই-ভিসা চালু ছিল। তবে এখন থেকে সব ধরনের ভিসার ক্ষেত্রে ই-ভিসা নেওয়া যাবে।

এ সময় সৌদি রাষ্ট্রদূত বলেন, সুদান থেকে ১০০টি দেশের ৬ হাজার লোককে সৌদি আরব উদ্ধার করেছে। বাংলাদেশের নাগরিকদেরও উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয়েছে। সুদান থেকে এসে যে কেউ সৌদি আরবে আশ্রয় নিতে পারবেন। আমরা এক্ষেত্রে স্বাগত জানাই।

বিএমইটির মহাপরিচালক শহীদুল আলম বলেন, বাংলাদেশ থেকে যেসব কর্মী সৌদি আরব যান তারা আরবি পারেন না। এজেন্সি থেকে তারা ভিসা নিয়ে এলে বুঝতে পারেন না এটা কোন প্রকার ভিসা। সে কারণে ভিসায় ইংরেজি বা বাংলা ভাষা থাকলে সুবিধা হয়। আমি আশা করবো পরে সৌদি আরব ই-ভিসায় ইংরেজি বা বাংলা ভাষা সংযোজন করবে।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, সৌদি আরবে ভিজিটের জন্যও বাংলাদেশিরা ই-ভিসা নিতে পারবেন। তবে সেক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য বা সেনজেন ভিসা থাকতে হবে।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বাংলাদেশের নাগরিকদের জন্য ই-ভিসা চালু করেছে সৌদি আরব

আপডেট সময় : ১১:২৮:৪০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১ মে ২০২৩

নিউজ ডেস্ক:


বাংলাদেশের নাগরিকদের জন্য ই-ভিসা চালু করেছে সৌদি আরব। ফলে এখন থেকে সৌদি আরবে যেতে আর স্টিকার ভিসার প্রয়োজন হবে না।

সোমবার ঢাকার সৌদি দূতাবাসে এ ই-ভিসার উদ্বোধন করা হয়।

ই-ভিসা উদ্বোধন উপলক্ষে দূতাবাসে বক্তব্য দেন ঢাকায় নিযুক্ত সৌদি রাষ্ট্রদূত ঈসা বিন ইউসুফ আল দুহাইলান।
অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) মহাপরিচালক শহীদুল আলম, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পশ্চিম এশিয়া অনুবিভাগের মহাপরিচালক শফিকুর রহমান প্রমুখ।

এ সময় সৌদি রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশের নাগরিকরা আজ থেকে ই-ভিসা নিয়ে সৌদি আরব যেতে পারবেন। আজ একটি ঐতিহাসিক দিন। আর স্টিকার ভিসার প্রয়োজন হবে না। এটা অনেক সহজ হবে।

তিনি বলেন, আগে বাংলাদেশিদের ওমরাহর জন্য ই-ভিসা চালু ছিল। তবে এখন থেকে সব ধরনের ভিসার ক্ষেত্রে ই-ভিসা নেওয়া যাবে।

এ সময় সৌদি রাষ্ট্রদূত বলেন, সুদান থেকে ১০০টি দেশের ৬ হাজার লোককে সৌদি আরব উদ্ধার করেছে। বাংলাদেশের নাগরিকদেরও উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয়েছে। সুদান থেকে এসে যে কেউ সৌদি আরবে আশ্রয় নিতে পারবেন। আমরা এক্ষেত্রে স্বাগত জানাই।

বিএমইটির মহাপরিচালক শহীদুল আলম বলেন, বাংলাদেশ থেকে যেসব কর্মী সৌদি আরব যান তারা আরবি পারেন না। এজেন্সি থেকে তারা ভিসা নিয়ে এলে বুঝতে পারেন না এটা কোন প্রকার ভিসা। সে কারণে ভিসায় ইংরেজি বা বাংলা ভাষা থাকলে সুবিধা হয়। আমি আশা করবো পরে সৌদি আরব ই-ভিসায় ইংরেজি বা বাংলা ভাষা সংযোজন করবে।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, সৌদি আরবে ভিজিটের জন্যও বাংলাদেশিরা ই-ভিসা নিতে পারবেন। তবে সেক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য বা সেনজেন ভিসা থাকতে হবে।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি