ঢাকা ০৮:০৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিএনপি যদি নির্বাচন না করে তাদের অস্তিত্ব ধ্বংস: নাছিম

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:৫৯:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ৮৭ বার পড়া হয়েছে

নিউজ ডেস্ক:


বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেছেন, আমরা কাউকে আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আসতে বাধা দিব না। আমরা চাই সকলের অংশগ্রহণে একটি শান্তিপূর্ণ নির্বাচন। যদি কোনো দল নির্বাচনে আসে আমরা তাদের স্বাগত জানাই। আর যারা নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াবে বাংলার মানুষের কাছে তাদের জবাব দিতে হবে। বিএনপি যদি আগামী নির্বাচনে না আসে তাহলে তাদের অস্তিত্ব ধ্বংস হয়ে যাবে। আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও জনগণের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হবে। সে নির্বাচনে জনগণ যাকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করবে সেই ক্ষমতায় আসবে। নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় নির্বাচন কমিশনের অধীনে, সরকার নির্বাচন পরিচালনা করে না।

বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ নরসিংদী জেলা শাখার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, একটি দল রাজনীতির নামে বিদেশীদের কাছে ধর্ণা দেয়, প্রতিদিন নালিশ করে। বিদেশি প্রভুদের কাছে তারা দেশ ও দেশের মানুষের নামে মিথ্যাচার করে। তারা দেশে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করতে চায়। আমাদের পবিত্র সংবিধানকে তারা দ্বিখন্ডিত করতে চায়। তারা তাদের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে আমাদের প্রিয় বাংলাদেশের উপর আঘাত আনতে চায়। এই বিএনপি জামায়াত মানুষকে পুড়িয়ে মেরে রাস্তায় লাশ ফেলে হত্যার রাজনীতি করতে চায়।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি জামায়াত দেশকে ৭৫ এর পরে অন্ধকার যুগে নিয়ে গিয়েছিল। তারা জঙ্গিবাদীদের আশ্রয় দিয়েছিল এবং খুনীদের রক্ষা করার জন্য সংবিধানকে কলঙ্কিত করেছিল। খুনি জিয়া মুস্তাক গং সংবিধানের পবিত্রতা নষ্ট করেছিলো। তারা ইনডেমনিটি অর্ডিন্যান্স জারি করে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের রক্ষা করার চেষ্টা করেছিল। সে অন্ধকার যুগ থেকে মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার ও ভোটের অধিকার ফিরিয়ে এনেছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা। অনেক ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে তিনি মানুষের অধিকার ফিরিয়ে আনেন।

তারেক রহমানকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, সাজাপ্রাপ্ত হয়ে, এতিমদের টাকা মেরে খেয়ে দেশের মানুষের ভোট পাওয়া যাবে না। মুচলেকা দিয়ে বাংলাদেশ ছেড়ে লন্ডনে চলে গিয়ে দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেন। কখনো রাজনীতি করবেন না বলে চিকিৎসার জন্য চলে গিয়ে এখন আবার রাজনীতি করার স্বপ্ন দেখছেন। আপনার অতীত কর্মকান্ড বাংলার মানুষ ভুলে যায়নি। আপনি বাংলাদেশের রাজনীতিতে আর কখনো আসতে পারবেন না।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, সাবেক মন্ত্রী রাজুউদ্দিন আহমেদ রাজু এমপি, সাবেক প্রতিমন্ত্রী লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব:) নজরুল ইসলাম এমপি, ডা. আনোয়ারুল আশরাফ খান এমপি, জহিরুল হক ভূঁইয়া এমপি, নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জি এম তালেব, সাধারণ সম্পাদক পীরজাদা কাজী মোহাম্মদ আলী। সম্মেলন উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি গাজী মেজবাউল হোসেন সাচ্চু এবং প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক একেএম আফজালুর রহমান বাবু।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বিএনপি যদি নির্বাচন না করে তাদের অস্তিত্ব ধ্বংস: নাছিম

আপডেট সময় : ০৩:৫৯:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২৩

নিউজ ডেস্ক:


বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেছেন, আমরা কাউকে আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আসতে বাধা দিব না। আমরা চাই সকলের অংশগ্রহণে একটি শান্তিপূর্ণ নির্বাচন। যদি কোনো দল নির্বাচনে আসে আমরা তাদের স্বাগত জানাই। আর যারা নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াবে বাংলার মানুষের কাছে তাদের জবাব দিতে হবে। বিএনপি যদি আগামী নির্বাচনে না আসে তাহলে তাদের অস্তিত্ব ধ্বংস হয়ে যাবে। আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও জনগণের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হবে। সে নির্বাচনে জনগণ যাকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করবে সেই ক্ষমতায় আসবে। নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় নির্বাচন কমিশনের অধীনে, সরকার নির্বাচন পরিচালনা করে না।

বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ নরসিংদী জেলা শাখার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, একটি দল রাজনীতির নামে বিদেশীদের কাছে ধর্ণা দেয়, প্রতিদিন নালিশ করে। বিদেশি প্রভুদের কাছে তারা দেশ ও দেশের মানুষের নামে মিথ্যাচার করে। তারা দেশে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করতে চায়। আমাদের পবিত্র সংবিধানকে তারা দ্বিখন্ডিত করতে চায়। তারা তাদের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে আমাদের প্রিয় বাংলাদেশের উপর আঘাত আনতে চায়। এই বিএনপি জামায়াত মানুষকে পুড়িয়ে মেরে রাস্তায় লাশ ফেলে হত্যার রাজনীতি করতে চায়।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি জামায়াত দেশকে ৭৫ এর পরে অন্ধকার যুগে নিয়ে গিয়েছিল। তারা জঙ্গিবাদীদের আশ্রয় দিয়েছিল এবং খুনীদের রক্ষা করার জন্য সংবিধানকে কলঙ্কিত করেছিল। খুনি জিয়া মুস্তাক গং সংবিধানের পবিত্রতা নষ্ট করেছিলো। তারা ইনডেমনিটি অর্ডিন্যান্স জারি করে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের রক্ষা করার চেষ্টা করেছিল। সে অন্ধকার যুগ থেকে মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার ও ভোটের অধিকার ফিরিয়ে এনেছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা। অনেক ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে তিনি মানুষের অধিকার ফিরিয়ে আনেন।

তারেক রহমানকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, সাজাপ্রাপ্ত হয়ে, এতিমদের টাকা মেরে খেয়ে দেশের মানুষের ভোট পাওয়া যাবে না। মুচলেকা দিয়ে বাংলাদেশ ছেড়ে লন্ডনে চলে গিয়ে দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেন। কখনো রাজনীতি করবেন না বলে চিকিৎসার জন্য চলে গিয়ে এখন আবার রাজনীতি করার স্বপ্ন দেখছেন। আপনার অতীত কর্মকান্ড বাংলার মানুষ ভুলে যায়নি। আপনি বাংলাদেশের রাজনীতিতে আর কখনো আসতে পারবেন না।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, সাবেক মন্ত্রী রাজুউদ্দিন আহমেদ রাজু এমপি, সাবেক প্রতিমন্ত্রী লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব:) নজরুল ইসলাম এমপি, ডা. আনোয়ারুল আশরাফ খান এমপি, জহিরুল হক ভূঁইয়া এমপি, নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জি এম তালেব, সাধারণ সম্পাদক পীরজাদা কাজী মোহাম্মদ আলী। সম্মেলন উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি গাজী মেজবাউল হোসেন সাচ্চু এবং প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক একেএম আফজালুর রহমান বাবু।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি