ঢাকা ০৮:৩১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তানোরে বিড়ির টাকার জন্য নাতীর হাতে নানী খুন

সারোয়ার হোসেন
  • আপডেট সময় : ০৪:০৭:০৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ১১০ বার পড়া হয়েছে

তানোর প্রতিনিধি:


রাজশাহী তানোরে বিড়ির টাকার জন্য নাতির হাতে নানী খুনের ঘটনা ঘটেছে বলে নিশ্চিত করেন থানার ওসি আব্দুর রহিম । গত রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় দিকে উপজেলার বাধাইড় ইউনিয়ন (ইউপির) গোদামারী গ্রামে ঘটে চাঞ্চল্যকর খুনের ঘটনাটি ।
নিহত নানী হলেন, সোনা সরেন (৭৬)। সে সরেন টুডুর স্ত্রী। এই ঘটনায় নাতি ইসমাইল সরেনকে (২৪) আটক করেছেন পুলিশ। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রহিম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, তারা সম্পর্কে নানী-নাতি। একসঙ্গে বসবাস করতো। সামান্য বিড়ির টাকার জন্য গত রোববার বেলা আনুমানিক ১২টায় গন্ডগোল হয় দুজনের মধ্যে । সে-সময় মাদকাসক্ত ছিলেন নাতী ইসমাইল। সে কাউকে ঘরে ডুকতে দেননি। পরে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ঘরের মধ্যে লাশ দেখতে পায় পরিবারের সদস্যরা।

ওসি বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, কিল, ঘুষি ও বৃদ্ধার চলাচলের লড়ি দিয়ে আঘাতের ফলে মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় রাতে চুপিসরে লাশ দাফন করতে চাইলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাত নয়টার দিকে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে লাশ উদ্ধার ও ঘাতক নাতীকে আটক করা হয়। লাশ ময়না তদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

তানোরে বিড়ির টাকার জন্য নাতীর হাতে নানী খুন

আপডেট সময় : ০৪:০৭:০৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩

তানোর প্রতিনিধি:


রাজশাহী তানোরে বিড়ির টাকার জন্য নাতির হাতে নানী খুনের ঘটনা ঘটেছে বলে নিশ্চিত করেন থানার ওসি আব্দুর রহিম । গত রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় দিকে উপজেলার বাধাইড় ইউনিয়ন (ইউপির) গোদামারী গ্রামে ঘটে চাঞ্চল্যকর খুনের ঘটনাটি ।
নিহত নানী হলেন, সোনা সরেন (৭৬)। সে সরেন টুডুর স্ত্রী। এই ঘটনায় নাতি ইসমাইল সরেনকে (২৪) আটক করেছেন পুলিশ। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রহিম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, তারা সম্পর্কে নানী-নাতি। একসঙ্গে বসবাস করতো। সামান্য বিড়ির টাকার জন্য গত রোববার বেলা আনুমানিক ১২টায় গন্ডগোল হয় দুজনের মধ্যে । সে-সময় মাদকাসক্ত ছিলেন নাতী ইসমাইল। সে কাউকে ঘরে ডুকতে দেননি। পরে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ঘরের মধ্যে লাশ দেখতে পায় পরিবারের সদস্যরা।

ওসি বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, কিল, ঘুষি ও বৃদ্ধার চলাচলের লড়ি দিয়ে আঘাতের ফলে মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় রাতে চুপিসরে লাশ দাফন করতে চাইলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাত নয়টার দিকে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে লাশ উদ্ধার ও ঘাতক নাতীকে আটক করা হয়। লাশ ময়না তদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি