ঢাকা ০৪:৩৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রার্থী যেই হোক , আমরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেই জিতবো: মেয়র লিটন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:০৬:৩৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ মে ২০২৩ ৬৬ বার পড়া হয়েছে

প্রার্থী যেই হোক , আমরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেই জিতবো: মেয়র লিটন

নিজস্ব প্রতিবেদন:


আসন্ন ২১ জুন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত ও ১৪ দল সমর্থিত মেয়র প্রার্থী, আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, কৃষি খাতের উন্নয়ন ও গবেষণার জন্য রাজশাহীতে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করতে চাই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে কথা বলেছি, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি অনুষদের বর্তমান যে জায়গা আছে, সেখানে ভবনও আছে, আরো কয়েকটি বহুতল ভবন করতে হবে, খুব বেশি অর্থ লাগবে না। আশা করছি এটি বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে।

বুধবার (০৩ মে) বিকাল সাড়ে ৪টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত নগর ভবনের এ্যানেক্স সভাকক্ষে রাজশাহী মহানগর কৃষক লীগের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের সাথে ঈদ পুনর্মিলনী ও মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে ব্যাপক উন্নয়ন দৃশ্যমান হয়েছে। রাজশাহীর উন্নয়নে ২০১৯ সালে প্রায় ২৭০০ কোটি টাকার রাজশাহী মহানগরীর সমন্বিত নগর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প অনুমোদন দেন প্রধানমন্ত্রী। সেই প্রকল্পের ১২০০ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়ন করা হয়েছে। আরো ১৫০০ কোটি টাকা বরাদ্দ রয়েছে। এর সাথে আগামীতে আরো তিন থেকে চার হাজার কোটি টাকার বরাদ্দ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে আনতে চাই। তাহলে প্রায় সাড়ে চার থেকে ৫ হাজার কোটি টাকা রাজশাহীর উন্নয়নে খরচ করতে পারবো। আগামীতে নগরীর আয়তন বৃদ্ধি করা হবে। সম্প্রসারিত এলাকায় রাস্তা, ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়নসহ নাগরিক সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি করা হবে।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, বিএনপি সরাসরি নির্বাচনে আসলে আমাদের কোন আপত্তি নেই। কিন্তু তারা সরাসরি নির্বাচনে আসবে না। আবার গোপনে কাউকে সমর্থন দেবে। এমন ভন্ডামি তারা আগেও করেছে। প্রার্থী যেই হোক না কেন, আমরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেই জিততে চাই।

রাসিক মেয়র বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের যে উন্নয়ন করেছেন। রাজশাহীতে আমরা যে উন্নয়ন করেছি, সেগুলো যদি জনগণের সামনে সঠিকভাবে উপস্থাপন করতে পারি, তাহলে আমাদের জয় কেউ ঠেকাতে পারবে না।

সভায় বক্তব্য দেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোহাম্মদ আলী কামাল, যুগ্ম সম্পাদক আহসানুল হক পিন্টু, রাজশাহী মহানগর কৃষক লীগের সভাপতি রহমত উল্লাহ সেলিম, সাধারণ সম্পাদক সাকির হোসেন বাবু সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের নেতৃবৃন্দ। সভায় উপস্থিত ছিলেন মহানগর কৃষক লীগের সহ-সভাপতি মমিনুল আলম, মুর্শিদ কামাল রানা, এএইচএম আশিকুজ্জামান শাওন সহ নগর কৃষক লীগের সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

প্রার্থী যেই হোক , আমরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেই জিতবো: মেয়র লিটন

আপডেট সময় : ০৪:০৬:৩৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ মে ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদন:


আসন্ন ২১ জুন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত ও ১৪ দল সমর্থিত মেয়র প্রার্থী, আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, কৃষি খাতের উন্নয়ন ও গবেষণার জন্য রাজশাহীতে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করতে চাই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে কথা বলেছি, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি অনুষদের বর্তমান যে জায়গা আছে, সেখানে ভবনও আছে, আরো কয়েকটি বহুতল ভবন করতে হবে, খুব বেশি অর্থ লাগবে না। আশা করছি এটি বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে।

বুধবার (০৩ মে) বিকাল সাড়ে ৪টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত নগর ভবনের এ্যানেক্স সভাকক্ষে রাজশাহী মহানগর কৃষক লীগের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের সাথে ঈদ পুনর্মিলনী ও মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে ব্যাপক উন্নয়ন দৃশ্যমান হয়েছে। রাজশাহীর উন্নয়নে ২০১৯ সালে প্রায় ২৭০০ কোটি টাকার রাজশাহী মহানগরীর সমন্বিত নগর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প অনুমোদন দেন প্রধানমন্ত্রী। সেই প্রকল্পের ১২০০ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়ন করা হয়েছে। আরো ১৫০০ কোটি টাকা বরাদ্দ রয়েছে। এর সাথে আগামীতে আরো তিন থেকে চার হাজার কোটি টাকার বরাদ্দ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে আনতে চাই। তাহলে প্রায় সাড়ে চার থেকে ৫ হাজার কোটি টাকা রাজশাহীর উন্নয়নে খরচ করতে পারবো। আগামীতে নগরীর আয়তন বৃদ্ধি করা হবে। সম্প্রসারিত এলাকায় রাস্তা, ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়নসহ নাগরিক সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি করা হবে।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, বিএনপি সরাসরি নির্বাচনে আসলে আমাদের কোন আপত্তি নেই। কিন্তু তারা সরাসরি নির্বাচনে আসবে না। আবার গোপনে কাউকে সমর্থন দেবে। এমন ভন্ডামি তারা আগেও করেছে। প্রার্থী যেই হোক না কেন, আমরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেই জিততে চাই।

রাসিক মেয়র বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের যে উন্নয়ন করেছেন। রাজশাহীতে আমরা যে উন্নয়ন করেছি, সেগুলো যদি জনগণের সামনে সঠিকভাবে উপস্থাপন করতে পারি, তাহলে আমাদের জয় কেউ ঠেকাতে পারবে না।

সভায় বক্তব্য দেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোহাম্মদ আলী কামাল, যুগ্ম সম্পাদক আহসানুল হক পিন্টু, রাজশাহী মহানগর কৃষক লীগের সভাপতি রহমত উল্লাহ সেলিম, সাধারণ সম্পাদক সাকির হোসেন বাবু সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের নেতৃবৃন্দ। সভায় উপস্থিত ছিলেন মহানগর কৃষক লীগের সহ-সভাপতি মমিনুল আলম, মুর্শিদ কামাল রানা, এএইচএম আশিকুজ্জামান শাওন সহ নগর কৃষক লীগের সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি