ঢাকা ০৪:১২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রেডিও ভেরিতাস এশিয়া বাংলার নতুন কো-অর্ডিনেটর: ফাদার নিখিল গমেজ

খ্রীষ্টফার জয়
  • আপডেট সময় : ০৯:০৯:০৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৭ এপ্রিল ২০২৩ ১৩০ বার পড়া হয়েছে

রেডিও ভেরিতাস এশিয়া নতুন কো-অর্ডিনেটর ফাদার নিখিল গমেজ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


গত বুধবার ২৬ এপ্রিল ২০২৩ অনলাইন অনুষ্ঠানে রেডিও ভেরিতাস এশিয়া বাংলা বিভাগের বাংলাদেশ ও ভারতের কলকাতা এই দুই বাংলার নতুন কো-অর্ডিনেটর হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন ফাদার নিখিল এন্ডু গমেজ।

উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আরভিএ বাংলা বিভাগের গর্ভানিং বডির চেয়ারম্যান কলকাতার বিশপ শ্যামল বোস এবং বাংলাদেশ সামাজিক যোগাযোগ কমিশনের চেয়ারম্যান বিশপ জেমস্ রমেন বৈরাগি। এছাড়াও রেডিও ভেরিতাস বাংলা বিভাগের প্রোগ্রাম প্রযোজকগণ।

অনলাইন অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ সামাজিক যোগাযোগ কমিশনের চেয়ারম্যান বিশপ জেমস্ রমেন বৈরাগি । তিনি বলেন, সত্য বাণী প্রচারে রেডিও ভেরিতাস এশিয়া কাজ করে যাচ্ছে সব সময়। আরভিএ সত্য বাণী প্রচার করার মধ্য দিয়ে প্রান্তিক মানুষের জন্য সুখবর হয়ে উঠতে পারে। খ্রিস্টান-অখ্রিস্টান সকল মানুষের মধ্যে আরভিএর সমান গুরুত্ব রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আরভিএ বাংলা বিভাগের প্রতি ভালোবাসা অনেক মানুষের। তাই তিনি নতুন দায়িত্ব গ্রহণ করা ফাদারকে শুভেচ্ছা জানিয়ে আরভিএ বাংলা বিভাগকে সামনে দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবার আহ্ববান জানান এবং প্রাক্তন কো-অর্ডিনেটরসহ সকল প্রযোজকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ প্রকাশ করেন।

পরবর্তীতে আরভিএ বাংলা বিভাগের গর্ভানিং বডির চেয়ারম্যান বিশপ শ্যামল বোস নব অভিষিক্ত কো-অর্ডিনেটরের নাম ঘোষণার পূর্বে বলেন,নৌকার মাঝি হিসাবে এই দায়িত্বকে গ্রহণ করার মধ্যদিয়ে প্রতিষ্ঠানকে জনগণের মাঝে সঠিক ও সত্য প্রকাশে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। একই সাথে আরভিএ বাংলা বিভাগের মধ্যদিয়ে দুই বাংলার খ্রিস্টমণ্ডলী এক হয়ে কাজ করতে পারবে বাংলা ভাষাভাষী মানুষদের জন্য। বক্তব্য শেষে তিনি নতুন কো-অর্ডিনেটরের নাম ঘোষণা করেন ও তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান হয় ও দায়িত্ব হস্তান্তর করা হয়।

আরভিএ বাংলা বিভাগের দায়িত্ব পেয়ে ফাদার নিখিল অনুভূতি প্রকাশে বলেন, আমি প্রথমেই সৃষ্টিকর্তাকে অনেক ধন্যবাদ জানাই কারন তিনিই আমাকে এই গুরুদায়িত্ব দিয়েছেন যেন আমি মিডিয়ার মাধ্যমে সত্যকে প্রচার করতে পারি। রেডিও ভেরিতাস এশিয়া বাংলা বিভাগের কো-অর্ডিনেটর এর দায়িত্বটা আমি একটা পেশা হিসেবে দেখছিনা, এটা আমি মণ্ডলীর বড় সেবা দায়িত্ব হিসেবে আমার জীবনে গ্রহন করেছি, যার মধ্যদিয়ে আমি সত্যটাকে তুলে ধরব।

তিনি আরো বলেন, এই ডিজিটাল অনলাইনের মাধ্যমে বিভিন্ন অনুষ্ঠান প্রচার করার মধ্যদিয়ে শুধু এশিয়া নয় বরং বিশ্বের সকল মানুষের কাছে রেডিও ভেরিতাস এশিয়া বাংলা বিভাগের যে উদ্দেশ্য; সত্যের, শান্তির, ভালোবাসা, একতা ও সম্প্রীতির বার্তা সবার কাছে পৌঁছে দিতে চেষ্টা করব। সবশেষে তিনি সকলের সাহায্য সহযোগিতা কামনা করে রেডিও ভেরিতাসের পাশে থাকার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্যে, ফাদার নিখিল গমেজের জন্ম ২২ সেপ্টেম্বর ১৯৭৯ খ্রিস্টাব্দে বনপাড়া ধর্মপল্লীর অধীনে হারোয়া গ্রামে। তিনি ২২ জানুয়ারি ২০১০ খ্রিস্টাব্দে, যাজকবরণ সংস্কার লাভ করেন এবং আন্ধারকোটা ধর্মপল্লীতে সহকারী পাল-পুরোহিত হিসেবে এক বছর পালকীয় সেবা দায়িত্ব পালন করেন এবং পাশাপাশি রাজশাহী কলেজ থেকে ইতিহাস বিষয়ের উপর মাস্টার্স ডিগ্রী লাভ করেন।

২০১১ খ্রিস্টাব্দের থেকে ৯ জানুয়ারী ২০২০ খ্রিস্টাব্দ পযর্ন্ত তিনি পরিচালক হিসেবে খ্রিস্টজ্যোতি পালকীয় সেবাকেন্দ্রের দায়িত্ব পালন করেন।তিনি ২০১৩ সালে ভারতের নিউ দিল্লীতে NISCORT Media College থেকে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা এই বিষয়ের উপর ডিপ্লোমা ডিগ্রী অর্জন করেন। ২০১৬ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিষয়ে তিনি মাস্টার্স ডিগ্রী অর্জন করেন।

সেই সাথে বরেন্দ্রদূত অনলাইন ম্যাগাজিনের সম্পাদক ও প্রকাশ হিসাবে কাজ করেন। এছাড়া তিনি ধর্মপ্রদেশের অনলাইন রেডিও জ্যোতির সেক্রেটারির এবং প্রিন্ট মিডিয়ার সাথে যুক্ত ছিলেন। রেডিও ভেরিতাস এশিয়া ফিলিপাইনে, সম্পাদকীয় বোর্ড এর সদস্য হিসেবে তিনি ২০২০ খ্রিস্টাব্দ থেকে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

রেডিও ভেরিতাস এশিয়া বাংলার নতুন কো-অর্ডিনেটর: ফাদার নিখিল গমেজ

আপডেট সময় : ০৯:০৯:০৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৭ এপ্রিল ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক:


গত বুধবার ২৬ এপ্রিল ২০২৩ অনলাইন অনুষ্ঠানে রেডিও ভেরিতাস এশিয়া বাংলা বিভাগের বাংলাদেশ ও ভারতের কলকাতা এই দুই বাংলার নতুন কো-অর্ডিনেটর হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন ফাদার নিখিল এন্ডু গমেজ।

উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আরভিএ বাংলা বিভাগের গর্ভানিং বডির চেয়ারম্যান কলকাতার বিশপ শ্যামল বোস এবং বাংলাদেশ সামাজিক যোগাযোগ কমিশনের চেয়ারম্যান বিশপ জেমস্ রমেন বৈরাগি। এছাড়াও রেডিও ভেরিতাস বাংলা বিভাগের প্রোগ্রাম প্রযোজকগণ।

অনলাইন অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ সামাজিক যোগাযোগ কমিশনের চেয়ারম্যান বিশপ জেমস্ রমেন বৈরাগি । তিনি বলেন, সত্য বাণী প্রচারে রেডিও ভেরিতাস এশিয়া কাজ করে যাচ্ছে সব সময়। আরভিএ সত্য বাণী প্রচার করার মধ্য দিয়ে প্রান্তিক মানুষের জন্য সুখবর হয়ে উঠতে পারে। খ্রিস্টান-অখ্রিস্টান সকল মানুষের মধ্যে আরভিএর সমান গুরুত্ব রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আরভিএ বাংলা বিভাগের প্রতি ভালোবাসা অনেক মানুষের। তাই তিনি নতুন দায়িত্ব গ্রহণ করা ফাদারকে শুভেচ্ছা জানিয়ে আরভিএ বাংলা বিভাগকে সামনে দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবার আহ্ববান জানান এবং প্রাক্তন কো-অর্ডিনেটরসহ সকল প্রযোজকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ প্রকাশ করেন।

পরবর্তীতে আরভিএ বাংলা বিভাগের গর্ভানিং বডির চেয়ারম্যান বিশপ শ্যামল বোস নব অভিষিক্ত কো-অর্ডিনেটরের নাম ঘোষণার পূর্বে বলেন,নৌকার মাঝি হিসাবে এই দায়িত্বকে গ্রহণ করার মধ্যদিয়ে প্রতিষ্ঠানকে জনগণের মাঝে সঠিক ও সত্য প্রকাশে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। একই সাথে আরভিএ বাংলা বিভাগের মধ্যদিয়ে দুই বাংলার খ্রিস্টমণ্ডলী এক হয়ে কাজ করতে পারবে বাংলা ভাষাভাষী মানুষদের জন্য। বক্তব্য শেষে তিনি নতুন কো-অর্ডিনেটরের নাম ঘোষণা করেন ও তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান হয় ও দায়িত্ব হস্তান্তর করা হয়।

আরভিএ বাংলা বিভাগের দায়িত্ব পেয়ে ফাদার নিখিল অনুভূতি প্রকাশে বলেন, আমি প্রথমেই সৃষ্টিকর্তাকে অনেক ধন্যবাদ জানাই কারন তিনিই আমাকে এই গুরুদায়িত্ব দিয়েছেন যেন আমি মিডিয়ার মাধ্যমে সত্যকে প্রচার করতে পারি। রেডিও ভেরিতাস এশিয়া বাংলা বিভাগের কো-অর্ডিনেটর এর দায়িত্বটা আমি একটা পেশা হিসেবে দেখছিনা, এটা আমি মণ্ডলীর বড় সেবা দায়িত্ব হিসেবে আমার জীবনে গ্রহন করেছি, যার মধ্যদিয়ে আমি সত্যটাকে তুলে ধরব।

তিনি আরো বলেন, এই ডিজিটাল অনলাইনের মাধ্যমে বিভিন্ন অনুষ্ঠান প্রচার করার মধ্যদিয়ে শুধু এশিয়া নয় বরং বিশ্বের সকল মানুষের কাছে রেডিও ভেরিতাস এশিয়া বাংলা বিভাগের যে উদ্দেশ্য; সত্যের, শান্তির, ভালোবাসা, একতা ও সম্প্রীতির বার্তা সবার কাছে পৌঁছে দিতে চেষ্টা করব। সবশেষে তিনি সকলের সাহায্য সহযোগিতা কামনা করে রেডিও ভেরিতাসের পাশে থাকার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্যে, ফাদার নিখিল গমেজের জন্ম ২২ সেপ্টেম্বর ১৯৭৯ খ্রিস্টাব্দে বনপাড়া ধর্মপল্লীর অধীনে হারোয়া গ্রামে। তিনি ২২ জানুয়ারি ২০১০ খ্রিস্টাব্দে, যাজকবরণ সংস্কার লাভ করেন এবং আন্ধারকোটা ধর্মপল্লীতে সহকারী পাল-পুরোহিত হিসেবে এক বছর পালকীয় সেবা দায়িত্ব পালন করেন এবং পাশাপাশি রাজশাহী কলেজ থেকে ইতিহাস বিষয়ের উপর মাস্টার্স ডিগ্রী লাভ করেন।

২০১১ খ্রিস্টাব্দের থেকে ৯ জানুয়ারী ২০২০ খ্রিস্টাব্দ পযর্ন্ত তিনি পরিচালক হিসেবে খ্রিস্টজ্যোতি পালকীয় সেবাকেন্দ্রের দায়িত্ব পালন করেন।তিনি ২০১৩ সালে ভারতের নিউ দিল্লীতে NISCORT Media College থেকে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা এই বিষয়ের উপর ডিপ্লোমা ডিগ্রী অর্জন করেন। ২০১৬ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিষয়ে তিনি মাস্টার্স ডিগ্রী অর্জন করেন।

সেই সাথে বরেন্দ্রদূত অনলাইন ম্যাগাজিনের সম্পাদক ও প্রকাশ হিসাবে কাজ করেন। এছাড়া তিনি ধর্মপ্রদেশের অনলাইন রেডিও জ্যোতির সেক্রেটারির এবং প্রিন্ট মিডিয়ার সাথে যুক্ত ছিলেন। রেডিও ভেরিতাস এশিয়া ফিলিপাইনে, সম্পাদকীয় বোর্ড এর সদস্য হিসেবে তিনি ২০২০ খ্রিস্টাব্দ থেকে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি