ঢাকা ০৮:৫৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পুঠিয়ায় সমাজসেবা অধিদপ্তরের ভাতা ভোগিরা প্রতারণার শিকার

মেহেদী
  • আপডেট সময় : ০১:৫৬:৫০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৪ অগাস্ট ২০২৩ ৬২ বার পড়া হয়েছে

পুঠিয়া (রাজশাহী)প্রতিনিধি:


রাজশাহীর পুঠিয়ায় সমাজসেবা কার্যালয়ের ভাতা ভোগিরা প্রতারণার শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন।

গত অর্থবছরের এসব ভাতাভোগিরা তাদের ভাতার টাকা মোবাইলে পাওয়ার পর এক শ্রেণীর প্রতারক তাদের প্রতারণার ফাঁদ পেতে বেশ কয়েকজন ভাতা ভোগিদের সর্বশান্ত করেছে।

এসব প্রতারকেরা উপজেলার সমাজসেবা অফিসের কর্মকর্তা ও জেলা সমাজসেবা কর্মকর্তার নাম ভা ঙ্গি য়ে প্রতারণা করছে। প্রতারণা শিকার উপজেলার বিধবা, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধি ভাতা ভোগিরা রয়েছেন।

পুঠিয়া সমাজসেবা অফিস সূত্রে জানাগেছে, গত অর্থ বছরে পুঠিয়া সমাজসেবা অধিদপ্ত থেকে বিধবা ভাতা পেয়েছেন, ২৮৬৬ জন, বয়স্ক ভাতা পেয়েছেন, ৬৪৭৬ জন ও প্রতিন্ধি ভাতা পেয়েছেন, ৪৪৮৩ জন। এসব ভাতা ভোগিদের তিন মাস পর পর বিধবা ও বয়স্কদের মাসে ৫’শ টাকা করে এবং প্রতিবন্ধিদের মাসে ৮’শ ৫০ টাকা করে ভাতা প্রদান করা হয়।

ভাতার টাকা ভাতা ভোগিদের মোবাইল ফোনের মাধ্যমে দেওয়া হয়। মোবাইল ফোনের নগদের মাধ্যমে ভাতা প্রদানের সাথে সাথে এক শ্রেণীর প্রতারক চক্র ভাতাভোগির মোবাইলে ফোন করে কাওকে রাজশাহী সমাজ সে বা অফিসের লোক বলে কাওকে পুঠিয়া সমাজ সে বা অফিসের লোক বলে ফোনের নগদের একাউ ন্ট সমস্যা রয়েছে বলে ফোন করে।

পরে ফোনটির টাকা উত্তোলণের জন্য একটি ওটিপি পাঠায় সেটি বলার জন্য ভাতাভোগিরদের জানানো হয়। ওটিপিটি বলার সাথে সাথে প্রতারকণ চক্র মো বাইলের পিন বদল করে মোবাইলে থাকা টাকা উত্তোলন করে নেয়। উপজেলা প্রায় প্রতিটি ইউনিয়নের ভাতা ভোগিরা এ ধরনের প্রতারণার শিকার হয়েছে। প্রতারণার শিকার একাধিক ভাতাভোগিরা জানিয়ে ছেন, আামরা তাদে র কথা বিশ^াস করে সর্বশান্ত হয়েছি।

এব্যাপারে পুঠিয়া সমাজ সেবা অফিসার রবিউল করিম জানান,প্রতারণার বিষয়টি আমরা জানতে পেরে আমাদের ভাতাভোগিদের শতর্ক করে দিয়ে ছে। নগদের সাথে আমরা এ ধরনের প্রতারণার কথা জানিয়েছি। এছাড়াও যে সব নম্বর দিয়ে প্রতারণা করা হয়েছে সেসব নম্বর উল্লেখ করে থানা একটি জিডি করা হয়েছে বলে এ কর্মকর্তা জানিয়েছেন।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

পুঠিয়ায় সমাজসেবা অধিদপ্তরের ভাতা ভোগিরা প্রতারণার শিকার

আপডেট সময় : ০১:৫৬:৫০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৪ অগাস্ট ২০২৩

পুঠিয়া (রাজশাহী)প্রতিনিধি:


রাজশাহীর পুঠিয়ায় সমাজসেবা কার্যালয়ের ভাতা ভোগিরা প্রতারণার শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন।

গত অর্থবছরের এসব ভাতাভোগিরা তাদের ভাতার টাকা মোবাইলে পাওয়ার পর এক শ্রেণীর প্রতারক তাদের প্রতারণার ফাঁদ পেতে বেশ কয়েকজন ভাতা ভোগিদের সর্বশান্ত করেছে।

এসব প্রতারকেরা উপজেলার সমাজসেবা অফিসের কর্মকর্তা ও জেলা সমাজসেবা কর্মকর্তার নাম ভা ঙ্গি য়ে প্রতারণা করছে। প্রতারণা শিকার উপজেলার বিধবা, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধি ভাতা ভোগিরা রয়েছেন।

পুঠিয়া সমাজসেবা অফিস সূত্রে জানাগেছে, গত অর্থ বছরে পুঠিয়া সমাজসেবা অধিদপ্ত থেকে বিধবা ভাতা পেয়েছেন, ২৮৬৬ জন, বয়স্ক ভাতা পেয়েছেন, ৬৪৭৬ জন ও প্রতিন্ধি ভাতা পেয়েছেন, ৪৪৮৩ জন। এসব ভাতা ভোগিদের তিন মাস পর পর বিধবা ও বয়স্কদের মাসে ৫’শ টাকা করে এবং প্রতিবন্ধিদের মাসে ৮’শ ৫০ টাকা করে ভাতা প্রদান করা হয়।

ভাতার টাকা ভাতা ভোগিদের মোবাইল ফোনের মাধ্যমে দেওয়া হয়। মোবাইল ফোনের নগদের মাধ্যমে ভাতা প্রদানের সাথে সাথে এক শ্রেণীর প্রতারক চক্র ভাতাভোগির মোবাইলে ফোন করে কাওকে রাজশাহী সমাজ সে বা অফিসের লোক বলে কাওকে পুঠিয়া সমাজ সে বা অফিসের লোক বলে ফোনের নগদের একাউ ন্ট সমস্যা রয়েছে বলে ফোন করে।

পরে ফোনটির টাকা উত্তোলণের জন্য একটি ওটিপি পাঠায় সেটি বলার জন্য ভাতাভোগিরদের জানানো হয়। ওটিপিটি বলার সাথে সাথে প্রতারকণ চক্র মো বাইলের পিন বদল করে মোবাইলে থাকা টাকা উত্তোলন করে নেয়। উপজেলা প্রায় প্রতিটি ইউনিয়নের ভাতা ভোগিরা এ ধরনের প্রতারণার শিকার হয়েছে। প্রতারণার শিকার একাধিক ভাতাভোগিরা জানিয়ে ছেন, আামরা তাদে র কথা বিশ^াস করে সর্বশান্ত হয়েছি।

এব্যাপারে পুঠিয়া সমাজ সেবা অফিসার রবিউল করিম জানান,প্রতারণার বিষয়টি আমরা জানতে পেরে আমাদের ভাতাভোগিদের শতর্ক করে দিয়ে ছে। নগদের সাথে আমরা এ ধরনের প্রতারণার কথা জানিয়েছি। এছাড়াও যে সব নম্বর দিয়ে প্রতারণা করা হয়েছে সেসব নম্বর উল্লেখ করে থানা একটি জিডি করা হয়েছে বলে এ কর্মকর্তা জানিয়েছেন।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে.সি