ঢাকা ০৮:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজশাহীতে জমি কিনে বিপাকে ভুক্তভোগী বাবুল

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:৫৬:১৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৫ অগাস্ট ২০২৩ ৪১ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক:


রাজশাহী মহানগরীর ছোটবনগ্রাম এলাকায় জমি কিনে বিপাকে পড়েছেন রাকিবুল হাসান বাবুল নামের এক ব্যক্তি। জমি ক্রয়ের পর খারিজ খাজনা পরিশোধ করলেও তাকে জমির দখল বুঝিয়ে না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিক্রেতা ছোটবনগ্রাম পূর্ব পাড়ার মৃত ওমর আলীর পুত্র মোঃ সিদ্দিকুর রহমানের বিরুদ্ধে।

রাকিবুল হাসান বাবুল জানান, রাজশাহী নগরীর ছোটবনগ্রাম মৌজায় জে.এল নং-১৩৩, আর.এস খতিয়ান নং-১৮৪, প্রস্তাবিত খতিয়ান-৬৬৯৪, আর.এস দাগ নং-৭৬২, ভিটা ০২৫০০ একর কাত ০.০২৫০ এর কাতে ০.০১৬৫ একর জায়গা ২০২১ সালে ফেব্রুয়ারি মাসে ছোটবনগ্রাম পূর্ব পাড়ার মৃত ওমর আলীর পুত্র মোঃ সিদ্দিকুর রহমানের নিকট থেকে ক্রয় করেন তিনি।

যার মূল্য ৭ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা। যা ২০২১ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি রাজশাহীর সদর সাব রেজিস্ট্রি অফিসে বিক্রয় কবলা দলিল সম্পাদন করা হয়। জায়গা ক্রয়ের পর যথারীতি তিনি নাম খারিজসহ খাজনা পরিশোধ করেন। যার খতিয়ান নং-৮৪১৪,হোল্ডিং নং-৮৭৬৯।

রাকিবুল হাসান বাবুলের অভিযোগ, তিনি নাম খারিজ করে খাজনা পরিশোধ করার পরও বিক্রেতা সিদ্দিকুর রহমান তাকে জায়গার সত্ব বুঝিয়ে না দিয়ে নানা তালবাহানা শুরু করেন।

এমনকি ওই জায়গায় গেলে সিদ্দিকুরের শরিকরা বাধা প্রদান এবং ভয়ভীতি প্রদর্শন করেন।এমতাবস্থায় তিনি জমির দখল না পেয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন ক্রেতা রাকিবুল হাসান বাবুল।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে সিদ্দিকুর রহমানের মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন দিলে ফোন বন্ধ পাওয়ায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে. সি

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

রাজশাহীতে জমি কিনে বিপাকে ভুক্তভোগী বাবুল

আপডেট সময় : ০২:৫৬:১৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৫ অগাস্ট ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক:


রাজশাহী মহানগরীর ছোটবনগ্রাম এলাকায় জমি কিনে বিপাকে পড়েছেন রাকিবুল হাসান বাবুল নামের এক ব্যক্তি। জমি ক্রয়ের পর খারিজ খাজনা পরিশোধ করলেও তাকে জমির দখল বুঝিয়ে না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিক্রেতা ছোটবনগ্রাম পূর্ব পাড়ার মৃত ওমর আলীর পুত্র মোঃ সিদ্দিকুর রহমানের বিরুদ্ধে।

রাকিবুল হাসান বাবুল জানান, রাজশাহী নগরীর ছোটবনগ্রাম মৌজায় জে.এল নং-১৩৩, আর.এস খতিয়ান নং-১৮৪, প্রস্তাবিত খতিয়ান-৬৬৯৪, আর.এস দাগ নং-৭৬২, ভিটা ০২৫০০ একর কাত ০.০২৫০ এর কাতে ০.০১৬৫ একর জায়গা ২০২১ সালে ফেব্রুয়ারি মাসে ছোটবনগ্রাম পূর্ব পাড়ার মৃত ওমর আলীর পুত্র মোঃ সিদ্দিকুর রহমানের নিকট থেকে ক্রয় করেন তিনি।

যার মূল্য ৭ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা। যা ২০২১ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি রাজশাহীর সদর সাব রেজিস্ট্রি অফিসে বিক্রয় কবলা দলিল সম্পাদন করা হয়। জায়গা ক্রয়ের পর যথারীতি তিনি নাম খারিজসহ খাজনা পরিশোধ করেন। যার খতিয়ান নং-৮৪১৪,হোল্ডিং নং-৮৭৬৯।

রাকিবুল হাসান বাবুলের অভিযোগ, তিনি নাম খারিজ করে খাজনা পরিশোধ করার পরও বিক্রেতা সিদ্দিকুর রহমান তাকে জায়গার সত্ব বুঝিয়ে না দিয়ে নানা তালবাহানা শুরু করেন।

এমনকি ওই জায়গায় গেলে সিদ্দিকুরের শরিকরা বাধা প্রদান এবং ভয়ভীতি প্রদর্শন করেন।এমতাবস্থায় তিনি জমির দখল না পেয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন ক্রেতা রাকিবুল হাসান বাবুল।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে সিদ্দিকুর রহমানের মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন দিলে ফোন বন্ধ পাওয়ায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।


প্রসঙ্গনিউজবিডি/জে. সি