শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:১১ পূর্বাহ্ন

দুর্যোগে মৃত্যু ঝুঁকি হ্রাসে বাংলাদেশ রোল মডেল : প্রতিমন্ত্রী

রিপোর্টারের নাম
  • সময় : বুধবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২২
  • ১০ দেখেছেন

প্রসঙ্গ ডেস্ক: দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান বলেছেন, বাংলাদেশে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার ঝুঁকি কমাতে আগাম সতর্কবার্তা এবং প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়। ফলে মৃত্যু ঝুঁকি শূন্যতে নেমে আসায় দুর্যোগ মোকাবিলায় বাংলাদেশ বিশ্বের কাছে রোল মডেল।

বুধবার (২৩ নভেম্বর) জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) কেন্দ্রীয় মিলনায়তনে ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের আয়োজনে ‘বাংলাদেশে দুর্যোগের ঝুঁকি হ্রাস ও প্রশমনে আগাম সতর্কবার্তা’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, দুর্যোগের আগাম সতর্কবার্তা গ্রহণের কারণে আমরা অনেক সফলতা অর্জন করেছি। আমাদের দেশে দুর্যোগ লাঘবের ক্ষেত্রে নারী সেচ্ছাসেবীরা যে ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন, তা খুবই প্রশংসনীয়। বর্তমানে উপকূলীয় এলাকায় সিপিপির ৭৬ হাজারের বেশি স্বেচ্ছাসেবক নিয়োজিত রয়েছেন, যার অর্ধেকই নারী। ফলে উপকূলীয় এলাকায় নারীদের মধ্যে দুর্যোগের আগাম প্রস্তুতি তুলনামূলক অনেক বেড়েছে। এছাড়া নিরাপদ আশ্রয়গ্রহণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় করণীয় সম্পর্কে সচেতনতাও লক্ষণীয় হারে বৃদ্ধি পেয়েছে।

ডা. মো. এনামুর রহমান বলেন, দুর্যোগে আগাম সতর্কবার্তা ও জীবন রক্ষাকারী সেবা দেওয়ায় নারীদের অংশগ্রহণ বেড়েছে। সে কারণে ঘূর্ণিঝড়ে নারীদের মৃত্যুর হার কমেছে। ১৯৭০ সালে ঘূর্ণিঝড়ে নারী-পুরুষ মৃত্যুর অনুপাত ছিল ১৪:১, ১৯৯১ সালে ৫:১, ২০১৭ সালে ২:১ এবং বর্তমানে এ অনুপাত ১:১। এ সবকিছুই সম্ভব হয়েছে আমাদের প্রধানমন্ত্রীসহ দেশের মানুষের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায়।

সেমিনারে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক বলেন, দুর্যোগসহ বিভিন্ন ঝুঁকি মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পদক্ষেপ বিশ্বে রোল মডেলে পরিণত হয়েছে। যেকোনো দুর্যোগ মোকাবিলায় দেশের নেতৃত্ব স্থান থেকে তৃণমূল পর্যন্ত সকলের ভূমিকা রাখা প্রয়োজন। এসব বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধির জন্য সভা-সেমিনার আয়োজন করা দরকার।

এসময় স্বাগত বক্তব্যে লাইফ অ্যান্ড আর্থ সায়েন্স অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মনিরুজ্জামান খন্দকার দুর্যোগের সতর্কতা ও প্রশমনে ‘জিআইএস’ ও ‘রিমোট সেন্সিং’ প্রযুক্তি ব্যবহার অন্তর্ভুক্তির ব্যাপারে জোর দেওয়ার প্রতি আহ্বান জানান।

সেমিনার মূল প্রবন্ধকার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ কিউ এম মাহবুব। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে কয়েকটি মেগা প্রকল্প গ্রহণ করতে সরকারের প্রতি দাবি জানান তিনি।

এসময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. শহিদুল ইসলাম সরকারকে পাহাড়সহ উঁচু ভূমি কর্তন না করে প্রকৃতিকে সমুন্নত রাখার প্রতি বিশেষ নজর দেওয়ার দাবি জানান।

জবির ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আব্দুল কাদেরের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. কামালউদ্দিন আহমেদ ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. শাহেদুর রশীদ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার.....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর.....