বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৫১ অপরাহ্ন

ইউক্রেনে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর বিদ্যুৎ নেই মলদোভায়

রিপোর্টারের নাম
  • সময় : বুধবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২২
  • ১১ দেখেছেন

প্রসঙ্গ ডেস্ক : রুশ বাহিনীর ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর ইউক্রেন ও তার প্রতিবেশী দেশ মলদোভার বিশাল অংশ বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় রয়েছে। মলদোভার উপপ্রধানমন্ত্রী আন্দ্রেই স্পুনি বুধবার এক টুইটবার্তায় এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

টুইটবার্তায় স্পুনি বলেন, ‘আজ ইউক্রেনের বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থায় রুশ বাহিনীর মিসাইল হামলার কারণে মলদোভার অধিকাংশ এলাকায় বিদ্যুৎ নেই। মলদেলেক্ট্রিয়ার (মলদোভার রাষ্ট্রায়ত্ত বিদ্যুৎ সরবরাহ কোম্পানি) কর্মীরা সরবরাহ স্বাভাবিক করতে কাজ করছে। আপাতত দেশের ৫০ শতাংশেরও বেশি এলাকায় দ্রুত বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক করার চেষ্টা করা হচ্ছে।’

মলদোভার মূল ভূখণ্ডের পাশাপাশি প্রাক্তন সোভিয়েত ইউনিয়নের ভূখণ্ডের অধীন অঞ্চল ও বর্তমানে মলদোভার একমাত্র প্রদেশ ট্রান্সদিনিস্ত্রা অঞ্চলেও বিদ্যুৎ নেই বলে জানিয়েছে সেখানকার প্রাদেশিক সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

বুধবার ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ, পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর লভিভসহ বিভিন্ন শহরে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় রুশ বাহিনী। এই হামলায় ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয় ইউক্রেনের বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থা।

পূর্ব ইউরোপের ভূ-পরিবেষ্টিত দেশ মলদোভার আয়তন মাত্র ৩৩ হাজার ৮৫১ বর্গকিলোমিটার। এটি ইউরোপের সবচেয়ে ছোটো এবং দরিদ্র দেশগুলোর মধ্যে একটি।

মলদোভার একদিকে রোমানিয়া, অপর তিন দিকেই ইউক্রেন। দেশটি বিদ্যুতের জন্য প্রায় সম্পূর্ণভাবে ইউক্রেনের ওপর নির্ভরশীল।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর যেসব দেশ ইউক্রেনীয় শরনার্থীদের আশ্রয় দিয়েছে, সেসবের মধ্যে শীর্ষে রয়েছে মলদোভা। পুর্ব ইউরোপের ছোট ও দারিদ্র্যপীড়িত এই দেশটিতে আশ্রয় নিয়েছেন সর্বোচ্চসংখ্যক ইউক্রেনীয় শরণার্থী।

সূত্র : রয়টার্স

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার.....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর.....