বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:৪৭ অপরাহ্ন

লোডশেডিংয়ে ফ্রিজের খাবার ভালো রাখার উপায়

রিপোর্টারের নাম
  • সময় : মঙ্গলবার, ২২ নভেম্বর, ২০২২
  • ১৫ দেখেছেন

প্রসঙ্গ ডেস্ক: ফ্রিজ বা রেফ্রিজারেটর আধুনিক জীবনে এক স্বস্তির নাম। বিশেষ করে কর্মজীবিরা দিনশেষে রান্নার ঝক্কি থেকে রেহাই পেতে নির্ভর করেন এই যন্ত্রের ওপরই।

তবে এই নির্ভরতায় বিঘ্ন ঘটাচ্ছে বিদ্যুৎ বিভ্রাট। দিনে বেশ কয়েক ঘণ্টা বিদ্যুৎ না থাকার ঘটনাও ঘটছে। দীর্ঘক্ষণ বিদ্যুৎ না থাকায় ফ্রিজের খাবার পঁচে যাওয়া নিয়ে ধকল পোহাতে হচ্ছে অনেকেরই। এ সমস্যার সমাধান করুন ৩ উপায়ে-

ফ্রিজের দরজা বন্ধ রাখুন

যুক্তরাষ্ট্র ডিপার্টমেন্ট অব এগ্রিকালচারের (ইউএসডিএ) তথ্যমতে, বিদ্যুৎ সংকটের সময় একটি বন্ধ রেফ্রিজারেটর ৪ ঘণ্টা পর্যন্ত এর তাপমাত্রা ধরে রাখতে পারে।

এছাড়া খাবারে অর্ধেক পূর্ণ একটি ফ্রিজার ২৪ ঘণ্টা ও খাবারে পুরোপুরি পূর্ণ ফ্রিজার ৪৮ ঘণ্টা পর্যন্ত এর তাপমাত্রা ধরে রাখতে পারে।

রেফ্রিজারেটরের দরজা বারবার খোলা হলে এর ভেতরের তাপমাত্রা বেড়ে যেতে পারে। তাই কেবল ফ্রিজের দরজা বন্ধ রেখেই অনেক ক্ষেত্রে কিছু খাবার তাজা রাখা সম্ভব।

ফ্রিজারে খাবার স্থানান্তর

ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) এর মতে, রেফ্রিজারেটরের তুলনায় ফ্রিজার দীর্ঘক্ষণ তাপমাত্রা ধরে রাখতে পারে। তাই তাদের পরামর্শ, খাবার নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা থাকলে একটা সময় পর কোনো খাবারকে রেফ্রিজারেটর থেকে সরিয়ে ফ্রিজারে রাখা যেতে পারে।

বাংলাদেশের আবহাওয়া যদিও যুক্তরাষ্ট্রের চেয়ে তুলনামূলকভাবে গরম, তারপরও এই পরামর্শ অনুসরণ করে যে খাবার এখনই প্রয়োজন হচ্ছে না, সেগুলো নষ্ট হওয়া থেকে রক্ষা করতে পারবেন।

কুলপ্যাক ফিচার

বিদ্যুৎ বিভ্রাট পরিস্থিতিতে নতুন করে যারা ফ্রিজ কিনছেন, তারা শুধু ব্র্যান্ড মাথায় রাখলেই হবে না। ভাবতে হবে প্রযুক্তিগত দিকটিও। সম্প্রতি কুলপ্যাক নামে একটি ফিচার রেফ্রিজারেটরে যুক্ত করছে কিছু ব্র্যান্ড।

বিদ্যুৎ না থাকলে ফ্রিজারে তাপ শোষণ করে নিতে পারে কুলপ্যাক ফিচার। ফলে বিদ্যুৎ ছাড়াও ফ্রিজের ভেতর খাবার দীর্ঘসময় ঠান্ডা থাকে। স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে ১২ ঘণ্টা বেশি সময় ঠান্ডা ধরে রাখতে পারে কুলপ্যাক ফিচার।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার.....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর.....