বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:৩১ অপরাহ্ন

মধ্যরাতের জমজমাট কাঁচাবাজার

রিপোর্টারের নাম
  • সময় : শুক্রবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২২
  • ২১ দেখেছেন

প্রসঙ্গ ডেস্ক: দোকানপাটে তালা ঝুলিয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন দোকানিরা। অধিকাংশ অভিজাত শপিংমল ও মার্কেটগুলোতে তখন সুনসান নীরবতা। দিনের ব্যস্ততম সড়কটিতেও সীমিত হয়েছে যান চলাচল। কেবল সড়কের ওপর সারিবদ্ধ ভ্যানে সাজানো হরেক রকম পণ্য। ক্রেতাদের অপেক্ষায় একদল বিক্রেতা।

শাক-সবজির এই বাজার শুরুই হয় রাত নয়টার পর, চলে দেড়টা-দুইটা পর্যন্ত। মূলত কিছুটা কম দামে আর টাটকা সবজির আশাতেই মানুষ মধ্যরাতে আসেন এখানে।

রংপুর নগরীর সুপার মার্কেটের সামনে প্রতিদিন বসে এই বাজার। কৈলাশরঞ্জন স্কুলের মোড় থেকে পূবালী ব্যাংক পর্যন্ত শতাধিক ভ্যানে হরেক রকম সবজির পসরা সাজিয়ে বসেন ব্যবসায়ীরা।

বাজারের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এ বাজারে কেনাকাটা করতে আসা প্রায় সবাই আশপাশের বিভিন্ন মহল্লার বাসিন্দা। কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে কেনাকাটা করেন তারা। আবার কেউ কেউ সবজি কিনতেই বাড়ি থেকে আসেন এই বাজারে।

এ বাজারের নিয়মিত ক্রেতা সাউন্ড সিস্টেম ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম জানান, খামারপাড়ার একটি কমিউনিটি সেন্টারে কাজ শেষে জুম্মাপাড়ায় বাড়ি ফেরার পথে তিনি শাপলা চত্বর অথবা সুপার মার্কেটের সামনে এসে প্রায় প্রতিদিনই সবজি কেনেন। এখানে অন্য বাজারের চাইতে গড়ে পাঁচ থেকে দশ টাকা কম মূল্যে সবজি পাওয়া যায়।

শহরের মুলাটোল এলাকার বাসিন্দা এনামুল হক জানান, হাড়িপট্টি রোডে দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফেরার পথে তিনি এই বাজার থেকে সবজি কেনেন।

এনামুল হক বলেন, রাতের এ বাজারে কোনো ঝামেলা নেই। বেশি দরদাম করতে হয় না। সবজিও টাটকা পাওয়া যায়।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, বিভিন্ন পেশার মানুষ এখান থেকে সবজি কিনছেন। অনেকেই সড়কের পাশে বাজার দেখে যাত্রা থামিয়ে কেনাকাটা করছেন।

বিক্রেতারা জানান, রংপুর শহরের আশপাশের বিভিন্ন গ্রাম থেকে চাষিদের উৎপাদিত সবজি তারা সংগ্রহ করে এনে এ বাজারে বিক্রি করেন। পাশাপাশি নগরের সিটি বাজারের পাইকারি ব্যবসায়ীদের কাছ থেকেও তারা সবজি কিনে এখানে বিক্রি করেন।

প্রায় এক যুগ বছর ধরে এ বাজারে সবজি বিক্রি করছেন কুকরুল এলাকার সাজ্জাদুল ইসলাম।

তিনি বলেন, দিনে সিটি মার্কেটের পাইকারি বাজার থেকে সবজি কিনে শহরের বিভিন্ন পাড়ায় ভ্যান চালিয়ে বিক্রি করেন। রাত নয়টা বাজলেই চলে আসেন সুপার মার্কেটের সামনে। দেড়টা-দুইটা পর্যন্ত চলে বিক্রি।

রংপুর সদর উপজেলার সদ্যপুস্করিনী ইউনিয়নের পালিচড়া গ্রামের মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, সিটি বাজারে ব্যবসা করার মতো পুঁজি নেই। তাই স্বল্প পুঁজিতে এভাবে ভ্যানে করে সবজি বিক্রি করে সংসার চালাতে হয়। এখানে দোকান ভাড়া লাগে না। কোনো জামানত দিতে হয় না।

তবে নগরীর শাপলা চত্বর এলাকায় এই বাজার শুরু হয় আরও আগে থেকে। সেখানে বিকেল গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের পসরা সাজিয়ে বসতে শুরু করেন দোকানিরা। পুরোপুরি সন্ধ্যা ঘনিয়ে এলে ক্রেতারাও এসে ভিড় জমাতে থাকেন এ বাজারে।

এই বাজারের নিয়মিত ক্রেতা বদরুদ্দোজা বলেন, এখানে সবজি কিনলে টাটকা পাওয়া যায়। এছাড়া তুলনামূলকভাবে দাম কিছুটা কম।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার.....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর.....