মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৩:১৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
প্রাক্তন ছাত্রীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগ উঠেছে সহকারী প্রক্টরের নেইমারকে ছাড়াই জয় ব্রাজিলের ‘বিএনপি উচ্ছৃঙ্খলতা করলে বরদাশত করা হবে না’- রাসিক মেয়র ছোট্ট স্বপ্নের গল্পপাঠের আসর ১১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতির পিতার মৃত্যুতে রাসিক মেয়রের শোক ঢাকা থেকে নৌকা নিয়ে বাঘায় পৌঁছে ফুলে ফুলে সিক্ত হলেন-পিন্টু গোদাগাড়ীর সুলতানগঞ্জ পোর্টে কাস্টমস কার্যক্রম চালুকরণ বিষয়ে মতবিনিময় রাজশাহী মহানগর ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদকের দাদীর মৃত্যুতে শোক শিবগঞ্জে শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে শীতকালীন শাক-সবজির বীজ বিতরণ রাসিক মেয়রের সাথে প্যারা কমান্ডো ব্রিগেড কমান্ডারের সৌজন্য সাক্ষাৎ

গজালিয়া সুইসগেট বন্ধ, তলিয়ে গেছে আমনখেত

রিপোর্টারের নাম
  • সময় : শুক্রবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২২
  • ১৬ দেখেছেন

প্রসঙ্গ ডেস্কঃ বটিয়াঘাটা উপজেলার সুরখালী ইউনিয়নের গজালিয়া মৌজার অধিকাংশ জমির আমন ধান পানিতে তলিয়ে রয়েছে। গজালিয়া স্লুইসগেট বন্ধ রাখায় বিলের ধান পানিতে তলিয়ে গেছে অভিযোগ করছেন এলাকাবাসীরা।

জানা গেছে, গজালিয়া মৌজায় প্রায় ৮০০ একর জমিতে আমন ধান চাষ করা হয়েছে। ওই বিলটি বগার বিল নামে পরিচিত। দীর্ঘদিন ধরে গজালিয়া এলাকার কারিমুল মোল্লা স্লুইসগেটটি দখল করে রেখেছে। ফলে তিনি তাঁর ইচ্ছামতো গেট দিয়ে পানি সরবরাহ করেন। তাই প্রতিবছর স্লুইসগেটটি বন্ধ রাখার কারণে এ সময় আমন ধান পানিতে তলিয়ে যায়। গতকাল বৃহস্পতিবার এলাকাবাসীরা ওই স্লুইসগেট খুলে বিলের পানি সরাতে যান। এ সময় কারিমুল মোল্লা, তাঁর ছেলেসহ কিছু লোকজন এলাকাবাসীদের ওপর হামলা চালায়। হামলায় গজালিয়া গ্রামের মহসিন গুরুতর আহত হন। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

স্থানীয় কৃষক শাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘আমাদের এই সমস্যা অনেক দিন থেকে চলছে। কিন্তু স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী নেতার ছত্রচ্ছায়ায় কারিমুল ও তাঁর ছেলেরা জোরপূর্বক গেট দখল করে জাল দিয়ে মাছ ধরছেন। ফলে তাঁরা তাঁদের ইচ্ছামতো পানি সরবরাহ করেন। এ ক্ষতি থেকে পরিত্রাণ পেতে আমরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষর দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।’

এলাকার আব্দুল আহাদ, সাইদুল, হাবিবর রহমানসহ আরও অনেকে অভিযোগ করে বলেন, গেট বন্ধ করে মাছ শিকার করেন কারিমুল ও তাঁর লোকজন। ফলে চলতি মৌসুমে গজালিয়া মৌজার আমন ধান পানিতে প্লাবিত হয়।

স্থানীয় ইউপি সদস্য প্রসাদ চন্দ্র বলেন, ‘ঘটনাটি সম্পর্কে আমি শুনেছি। দেখি তাঁদের সঙ্গে বসে কী করা যায়।

বটিয়াঘাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মমিনুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় এখনো কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। এলাকাবাসীদের অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সূত্রঃ আজকের পত্রিকা

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার.....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর.....