সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১১:০৯ পূর্বাহ্ন

আবারও ৩ দিনের কর্মবিরতিতে যাচ্ছেন রামেক ইন্টার্ন চিকিৎসরা

রিপোর্টারের নাম
  • সময় : শনিবার, ২২ অক্টোবর, ২০২২
  • ১৭ দেখেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক: আল্টিমেটাম শেষ হলেও এখনো কেউ গ্রেপ্তার না হওয়া ও মামলা রেকর্ড না হওয়ায় আবারো তিন দিনের কর্ম বিরতিতে যাবার ঘোষণা দিলেন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। শনিবার দুপুরে রামেক হাসপাতালের সামনে বিএমএ, স্বাচিপ ও রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ইন্টার্ন চিকিৎসক পরিষদের আয়োজনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে এই ঘোষণা দেন তারা।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী কর্তৃক হাসপাতালে ভাংচুর, প্রশাসনিক কাজে বাধা, সাধারণ রোগীদের চিকিৎসা সেবা ব্যাহত করা ও কর্তব্যরত চিকিৎসকদের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশটি অনুষ্ঠিত হয়। এতে রামেক হাসপাতাল ইন্টার্ন চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি ইমরান হোসেন কর্মবিরতির ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, আমরা দুই দফা দাবি নিয়ে রামেকে কাজে ফিরেছিলাম। কিন্তু ৭২ পার হলেও এখন পর্যন্ত মামলা রেকর্ড হয়নি এমনকি কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। তাই পূর্বঘোষণা অনুযায়ী আজ এই মানববন্ধন থেকেই আমরা আগামী ৩ দিনের জন্য কর্মবিরতিতে যাচ্ছি। এছাড়াও কর্মদিবসের এই তিনদিন প্রতিদিন রামেক হাসপাতালে মূল গেটে অবস্থান কর্মসূচি পালন করবেন তারা।

মানববন্ধনে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা, হাসপাতাল পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী, রামেক অধ্যক্ষ ডা. নওশাদ আলী, ডা. খলিলুর রহমান, ডা. আজিজুল হয় আজাদসহ রামেক হাস্পাতালের ইর্ন্টান চিকিৎসার উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত বুধবার রাতে ছাদ থেকে পড়ে রাবি শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় রামেক হাসপাতালে ভাঙচুর চালায় রাবি শিক্ষার্থীরা। এ সময় তারা ইন্টার চিকিৎসকদের ওপর হামলা চালায়। এর পরপরই কর্মবিরতিতে চান ইন্টার্ন চিকিৎসকেরা। গত বৃহস্পতিবার রামেক কর্তৃপক্ষ ও ইন্টার্ন চিকিৎসকেরা যৌথ সমঝোতার মিটিংয়ের পর তারা ৭২ ঘন্টা সময়সীমা বেঁধে দেয়। তবে এই সময়ের মধ্যে কেউ গ্রেপ্তার বা মামলা রেকর্ড না হওয়ার কারণে আজ থেকে আবারো কঠোর আন্দোলনের ঘোষণা দেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। এর আগে রামেক হাসপাতাল থেকে মেডিকেল কলেজ পর্যন্ত তারা বিক্ষোভ মিছিল করেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার.....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর.....