সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১০:০০ পূর্বাহ্ন

শিশু জন্মের আনন্দে মিষ্টি বিতরণ নিয়ে সংঘর্ষ, নিহত ১

রিপোর্টারের নাম
  • সময় : বুধবার, ১২ অক্টোবর, ২০২২
  • ২৫ দেখেছেন

প্রসঙ্গ ডেস্কঃ বগুড়ার ধুনট উপজেলায় শিশু জন্মানোয় মিষ্টি বিতরণ করতে গিয়ে সংঘর্ষে আলমগীর হোসেন (৪৫) নামের এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সেই সঙ্গে এই সংঘর্ষের ঘটনায় ছয়জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। গতকাল মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে উপজেলা পূর্ব গুয়াডহুরি গ্রামে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নিহত আলমগীর একই গ্রামের মহিরউদ্দিনের ছেলে। তিনি পেশায় একজন কাঠমিস্ত্রি ছিলেন। সংঘর্ষে আহতরা হলেন নিহত আলমগীর হোসেনের ছেলে শামীম হোসেন, সাজেদুল হোসেন, সাখিল হোসেন এবং তাঁর ভাই জাহাঙ্গীর হোসেন, জাহাঙ্গীরের মেয়ে শাবনূর ও ছেলে সজীব হোসেন।

থানার পুলিশ ও স্থানীয়রা বলছেন, জাহাঙ্গীর হোসেনের সঙ্গে তাঁর নাতনির স্বামী সবুর মিয়ার পরিবারের আগে থেকেই বিরোধ ছিল। তিন দিন আগে জাহাঙ্গীর হোসেনের ছেলের ঘরে একটি মেয়েসন্তানের জন্ম হয়। এই খুশিতে মঙ্গলবার বিকেলের দিকে জাহাঙ্গীরের মেয়ে সবুর মিয়ার বাড়িতে মিষ্টি নিয়ে যায়। সেখানে সবুর মিয়ার পরিবারের লোকজন মিষ্টি না নিয়ে তাকে মারধর করে। খবর পেয়ে রাত ৮টার দিকে আলমগীর হোসেন ও জাহাঙ্গীর হোসেন তাঁদের পরিবারের লোকজন নিয়ে সবুর মিয়ার বাড়িতে যান। এতে সবুর মিয়া ও তাঁর পরিবারের লোকজন ক্ষুব্ধ হয়ে আলমগীর হোসেনসহ সাতজনকে পিটিয়ে আহত করেন।

পরে স্থানীয় লোকজন আহত অবস্থায় তাঁদের উদ্ধার করে প্রথমে ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। সেখানে অবস্থার অবনতি হওয়ায় আলমগীর ও জাহাঙ্গীরকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১২টার দিকে আলমগীর হোসেন মারা যান। ঘটনার পর থেকে সবুর মিয়া ও তার পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছেন।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল ইসলাম বলেন, ‘হত্যার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে। নিহতের ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।’

সূত্রঃ আজকের পত্রিকা

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার.....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর.....