শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭:৫০ অপরাহ্ন

ইস্পাহানি নিবেদিত ‘বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক স্কোয়াশ টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণ

রিপোর্টারের নাম
  • সময় : বুধবার, ১২ অক্টোবর, ২০২২
  • ২৯ দেখেছেন

প্রসঙ্গ ডেস্কঃ ইস্পাহানির পৃষ্ঠপোষকতায় দ্বিতীয়বারের মত আয়োজিত বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক স্কোয়াশ টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান রাজধানীর গুলশান ক্লাবে  অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বাংলাদেশ স্কোয়াশ র‍্যাকেটস ফেডারেশন এই টুর্নামেন্টটি আয়োজন করে যাতে অংশ নিয়েছেন মিশর, ইরান, কুয়েত, মালয়েশিয়া, শ্রীলংকা ও বাংলাদেশের পেশাদার স্কোয়াশ খেলোয়াড়গণ। ৫ থেকে ৯ অক্টোবর, ২০২২ পর্যন্ত ৫ দিনব্যাপী এ টুর্নামেন্টে প্রথমবারের মত মূল টুর্নামেন্টের অন্তর্ভুক্ত ছিলো দেশ বিদেশের প্রখ্যাত স্কোয়াশ খেলোয়াড়দের অংশগ্রহণে আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টসহ মোট তিনটি টুর্নামেন্ট। টুর্নামেন্টটিতে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেন ১৬ জন পুরুষ খেলোয়াড়।

মেয়েদের স্যাটেলাইট ট্যুরে অংশ নেন বাংলাদেশের নারী খেলোয়াড়বৃন্দ। এছাড়াও চারটি গ্রুপে বিভক্ত যুব প্রতিযোগিতায় ঢাকা, কুমিল্লা, গোপালগঞ্জ, খাগড়াছড়ি ও বিকেএসপি’র ২৭টি ক্লাবের প্রায় দেড় শতাধিক নবীন খেলোয়াড় অংশ নেন।

রাজধানী ঢাকার গুলশান ক্লাবে ৯ অক্টোবর টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় যেখানে প্রতিপক্ষ ছিলেন মিশরের জিয়াদ ইব্রাহিম এবং শ্রীলঙ্কার রাভিন্দু লাক্সির। প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক  ফাইনাল ম্যাচে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন শ্রীলঙ্কার রাভিন্দু লাক্সির এবং  রানার আপ হয়েছেন মিশরের জিয়াদ ইব্রাহিম ।

ইস্পাহানি নিবেদিত ২য় ‘বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক স্কোয়াশ টুর্নামেন্ট’ ২০২২ এর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ স্কোয়াশ র‍্যাকেটস  ফেডারেশনের সভাপতি মুহাম্মদ ফারুক খান, ইস্পাহানি গ্রুপের চেয়ারম্যান মির্জা সালমান ইস্পাহানি, বাংলাদেশ স্কোয়াশ র‍্যাকেটস ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল কামরুল ইসলাম, এসপিপি (অবঃ) ,গুলশান ক্লাবের সভাপতি রফিকুল আলম (হেলাল) ও এরশাদ হোসেনসহ ফেডারেশন এবং গুলশান ক্লাবের নির্বাহী সদস্যবৃন্দ, আমন্ত্রীত অতিথিবৃন্দ এবং প্রাক্তন ও বর্তমান খেলোয়াড়গন।

এই প্রতিযোগিতার উন্মুক্ত মহিলা গ্রুপে বাংলাদেশের পেশাদার স্কোয়াশ খেলোয়াড় শাহিন কলেজের রিয়াজুল জান্নাত ও নির্ঝর ক্যান্টঃ পাবলিক স্কুলের নাবিলা তাসনিম ; ছেলেদের অনূর্ধ্ব- ১৭ গ্রুপে বিকেএসপি-র আমিনুল ও সাইমন; ছেলেদের অনূর্ধ্ব- ১৫  গ্রুপে বিকেএসপি’র পারভেজ ও গুলশান ক্লাবের ঊমায়ের জালাল; মেয়েদের অনূর্ধ্ব- ১৭ গ্রুপে খাগড়াছড়ি ক্যান্টঃ পাবলিক স্কুলের রাফিয়া ও মিশু এবং মেয়েদের অনূর্ধ্ব- ১৫ গ্রুপে ভাষানটেক স্কুলের চাদনী সরকার ও  গুলশান ক্লাবের সুহায়লা প্রিয়তা শহিদ যথাক্রমে  চ্যাম্পিয়ান ও  রানার্স আপ হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে।

তাছাড়া ক্লাব/প্রতিষ্ঠান ভিত্তিক ছেলেদের গ্রুপে বিকেএসপি; মেয়েদের খাগড়াছড়ি ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ স্কোয়াশ ক্লাব এবং সার্বিক ভাবে বিকেএসপি চ্যাম্পিয়ান হয়েছে।

মির্জা সালমান ইস্পাহানি তার শুভেচ্ছা বক্তব্যে টুর্নামেন্ট সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ প্রদান করেন এবং বঙ্গবন্ধুর নাম জড়িত এমন একটি টুর্নামেন্টের পৃষ্ঠপোষকতা করতে পারায় আয়োজকদের ধন্যবাদ দেন। তিনি বাংলাদেশের স্কোয়াশ খেলার প্রসারে সব সময় পাশে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

বাংলাদেশ  ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক বিগ্রেডিয়ার জি এম কামরুল ইসলাম বলেন যে,  নিজস্ব কোর্ট বিহীন অনেক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করেই মৃত্যুপ্রায় স্কোয়াশ খেলাকে  পুনর্জীবন দিয়ে আমরা দেশের সন্মান ও ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করবো ইনশাআল্লাহ। হিমালয়সম এই কঠিন যাত্রায় সংশ্লিষ্ট সকলকে আমাদের পাশে চাই।

উল্লেখ্য যে, বাংলাদেশে স্কোয়াশ খেলার জনপ্রিয়তা বাড়ানোর জন্য  ইস্পাহানি সবসময়ই সচেষ্ট। বিগত বছরে আয়োজিত ১ম বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক স্কোয়াশ টুর্নামেন্টসহ বাংলাদেশ স্কোয়াশ র‍্যাকেটস ফেডারেশনের অন্যান্য টুর্নামেন্টেরও পৃষ্ঠপোষকতা করেছে ইস্পাহানি। এছাড়াও ক্রিকেট, ফুটবল, বাস্কেটবল, দাবা, গলফসহ অন্যান্য খেলায়ও ইস্পাহানি সবসময়ই পৃষ্ঠপোষকতা করে থাকে।

সূত্রঃ যুগান্তর

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার.....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর.....