মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৮:১৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শারদীয় দূর্গাপূজার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ছাত্রলীগের গণযোগাযোগ ও উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক তূর্য চারঘাটে নিজ গায়ে আগুন লাগিয়ে বৃদ্ধার আত্মহত্যা রাজশাহীতে চলন্ত বাসে ঢুকে গেল বিদ্যুতের খুঁটি নগরায়নের নয়া মহামারি ‘শব্দদূষণ’ রোধের দাবি তরুণদের আরইউজে সম্পাদকের ওপর হামলায় জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার জেলা শাখার নিন্দা বানেশ্বরে নাদের আলী স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ও সভাপতির হাতাহাতি ওয়ালটনের কল সেন্টারে চাকরির সুযোগ রাজশাহীর শ্রেষ্ঠ ইউএনও দুর্গাপুরের সোহেল রানা পুঠিয়া রিপোর্টার্স ইউনিটির কমিটি গঠন: সভাপতি আরিফ, সম্পাদক রুবেল তানোরে রংতুলির কাজ শেষ, থানে তোলার অপেক্ষায় প্রতিমা 

মঞ্চে সাবেক এমপির মাইক কেড়ে নিলেন বর্তমান এমপি

রিপোর্টারের নাম
  • সময় : মঙ্গলবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৩০ দেখেছেন

প্রসঙ্গ ডেস্কঃ নওগাঁ-৩ আসনের সাবেক এমপি আকরাম হোসেন চৌধুরীর হাত থেকে মঞ্চে মাইক্রোফোন কেড়ে নিয়েছেন বর্তমান এমপি ছলিম উদ্দিন তরফদার। এ ঘটনার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) রাত থেকেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ঘুরছে ভিডিওটি।
ভিডিওতে দেখা যায়, শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার বিলাশবাড়ী ইউনিয়নের শিবপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা চলছিল। এ সময় মঞ্চে বক্তব্য দিচ্ছিলেন ওই আসনের এমপি ছলিম উদ্দিন তরফদার। একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে তিনি মঞ্চে বসে থাকা আকরাম চৌধুরীর দিকে মাইক্রোফোন ছুড়ে দিয়ে বলেন, ‘নৌকার জন্য যখন আপনার এত ভালোবাসা তাহলে মাইক্রোফোন নিয়ে একটু বলেন, ২০১৮ সালে নির্বাচনের সময় কোথাও কারো জন্য ভোট চেয়েছেন কি না বা তার কোনো প্রমাণ কি দেখাতে পারবেন?’

তখন আকরাম চৌধুরী মাইক্রোফোন নিয়ে বলেন, ওই সময় বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান থাকায় আইনগত জটিলতায় ভোট চাইতে পারেননি তিনি। এ সময় এমপি ছলিম তরফদার তার হাত থেকে মাইক্রোফোন ছিনিয়ে নেন। তখন আশপাশে উপস্থিত নেতাকর্মীরা জোরে আওয়াজ তোলেন। ঘটনার দিন তাকে হাজারও মানুষের সামনে লাঞ্ছিত করা হয়েছে জানিয়ে ড. আকরাম হোসেন চৌধুরী বলেন, ‘আমাকে অনেক গালিগালাজ করা হয়েছে। মাস কয়েক আগে শেষ হওয়া চেয়ারম্যান নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ওই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগকে দুই ভাগ করা হয়েছে।’

সবাই বিলাশবাড়ী ইউনিয়নকে আওয়ামী লীগের ঘাঁটি দাবি করেন। তাই আকরাম চৌধুরী প্রশ্ন, তাহলে গত নির্বাচনে নৌকা কেন পরাজিত হলো? ঘাঁটি হঠাৎ করে ভেঙে গেল কেন। এ বিষয়ে নওগাঁ-৩ (বদলগাছী-মহাদেবপুর) আসনের এমপি ছলিম উদ্দিন তরফদার বলেন, ‘আমি একটি সভামঞ্চে আছি। এখানে আকরাম হোসেন চৌধুরীও আছেন। সেদিনের ঘটনা বড় কিছু নিয়ে নয়। অতীতের জমে থাকা ক্ষোভ থেকেই এমনটা হয়েছে। আমরা দুজন আবারও একই মঞ্চেই আছি, বক্তৃতা করছি।’ উল্লেখ্য, ড. আকরাম হোসেন চৌধুরী ২০০৮ সালের সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০১৪ সালের নির্বাচনে দলের বিদ্রোহী প্রার্থী হন বর্তমান সংসদ সদস্য ছলিম উদ্দিন তরফদার। সেই সময় তিনি নির্বাচিতও হয়েছিলেন। প্রায় তিন বছর বহিষ্কার থাকার পর ২০১৬ সালের দিকে ফের তাকে দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। এদিকে ২০১৫ সাল থেকে ২০২১ সালের শেষ পর্যন্ত বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বিএমডিএর চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন ড. আকরাম হোসেন চৌধুরী।

সূত্রঃ সময় নিউজ

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার.....

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরো খবর.....