মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৮:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শারদীয় দূর্গাপূজার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ছাত্রলীগের গণযোগাযোগ ও উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক তূর্য চারঘাটে নিজ গায়ে আগুন লাগিয়ে বৃদ্ধার আত্মহত্যা রাজশাহীতে চলন্ত বাসে ঢুকে গেল বিদ্যুতের খুঁটি নগরায়নের নয়া মহামারি ‘শব্দদূষণ’ রোধের দাবি তরুণদের আরইউজে সম্পাদকের ওপর হামলায় জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার জেলা শাখার নিন্দা বানেশ্বরে নাদের আলী স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ও সভাপতির হাতাহাতি ওয়ালটনের কল সেন্টারে চাকরির সুযোগ রাজশাহীর শ্রেষ্ঠ ইউএনও দুর্গাপুরের সোহেল রানা পুঠিয়া রিপোর্টার্স ইউনিটির কমিটি গঠন: সভাপতি আরিফ, সম্পাদক রুবেল তানোরে রংতুলির কাজ শেষ, থানে তোলার অপেক্ষায় প্রতিমা 

আধিপত্য বিস্তারের জন্যই খুন হন আ. লীগ নেতা হাবু: ডিবি

রিপোর্টারের নাম
  • সময় : বৃহস্পতিবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ২৩ দেখেছেন

প্রসঙ্গ ডেস্কঃ রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে আওয়ামী লীগ নেতা আবু বক্কর সিদ্দিক হাবু (৩৭) খুনের ঘটনায় প্রধান আসামি মুশফিকুর রহমান ফাহিমকে (৪৩) গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের ওয়ারী বিভাগ। মুশফিকুর রহমান যাত্রাবাড়ী থানা যুবদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। ডিবি বলছে, দীর্ঘদিন ধরে রাজনৈতিক দ্বন্দ, আধিপত্য বিস্তার ও ব্যবসাকে কেন্দ্র করে হাবুকে হত্যা করেন যুবদল নেতা ফাহিম।

আজ বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে মিন্টো রোডে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে গোয়েন্দা পুলিশের প্রধান অতিরিক্ত কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ এ তথ্য জানান। বুধবার রাতে রাজধানীর শাহবাগ থানার শিক্ষা ভবন এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বলেন, ‘গত ১৬ আগস্ট সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগ নেতা আবু বক্কর সিদ্দিক হাবু যাত্রাবাড়ী থানাধীন নিরালা হার্ডওয়্যারের সামনে পৌঁছালে ফাহিমসহ এজাহারভুক্ত আসামিরা ছুরি, চাপাতি এবং চাকু দিয়ে হাবুর পেটের ডানপাশে আঘাত করেন। এতে হাবুর মৃত্যু হয়। পরে মরদেহ ফেলে পালিয়ে যান আসামিরা। ঘটনার পরদিন নিহত হাবুর ভাই মো. বাচ্চু মিয়া বাদী হয়ে যাত্রাবাড়ী থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলায় ১১ জনের নাম উল্লেখ করা হয়।’

এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় এখন পর্যন্ত পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এজাহারভুক্ত গ্রেপ্তার পাঁচ আসামি হলেন মুশফিকুর রহমান ফাহিম (প্রধান আসামি), ফালান ওরফে কানা ফালান, মো. সেলিম, মো. আল আমিন ও সুজন আকন।

গ্রেপ্তার মুশফিকুরকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে ডিবি প্রধান বলেন, ‘আবু বক্কর সিদ্দিক হাবুর সঙ্গে তাদের দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা রাজনৈতিক দ্বন্দ ও ব্যবসাকে কেন্দ্র করে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। আসামিরা হত্যাকাণ্ডের পর আত্মগোপনে চলে যায়।’ এরপর অভিযান চালিয়ে মূল আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

সূত্রঃ আজকের পত্রিকা

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার.....

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরো খবর.....