মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৭:০১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শারদীয় দূর্গাপূজার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ছাত্রলীগের গণযোগাযোগ ও উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক তূর্য চারঘাটে নিজ গায়ে আগুন লাগিয়ে বৃদ্ধার আত্মহত্যা রাজশাহীতে চলন্ত বাসে ঢুকে গেল বিদ্যুতের খুঁটি নগরায়নের নয়া মহামারি ‘শব্দদূষণ’ রোধের দাবি তরুণদের আরইউজে সম্পাদকের ওপর হামলায় জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার জেলা শাখার নিন্দা বানেশ্বরে নাদের আলী স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ও সভাপতির হাতাহাতি ওয়ালটনের কল সেন্টারে চাকরির সুযোগ রাজশাহীর শ্রেষ্ঠ ইউএনও দুর্গাপুরের সোহেল রানা পুঠিয়া রিপোর্টার্স ইউনিটির কমিটি গঠন: সভাপতি আরিফ, সম্পাদক রুবেল তানোরে রংতুলির কাজ শেষ, থানে তোলার অপেক্ষায় প্রতিমা 

‘পররাষ্ট্রমন্ত্রী দলের কেউ না’ বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিলেন আবদুর রহমান

রিপোর্টারের নাম
  • সময় : সোমবার, ২২ আগস্ট, ২০২২
  • ২৫ দেখেছেন

প্রসঙ্গ ডেস্কঃ ‘পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন দলের কেউ না’-এমন বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আবদুর রহমান। রোববার তিনি যুগান্তরকে বলেন, ‘আমার কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যে দল বিব্রত কি না? সে পরিপ্রেক্ষিতে আমি সাংবাদিকদের বলেছি উনি দলের এমন কোনো নেতা নন, দলের নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের কেউ নন যে তিনি আওয়ামী লীগের পলিসি সম্পর্কে কথা বলতে পারেন। তাই তার কথার দায়দায়িত্ব আওয়ামী লীগ নিতে পারে না।’

এদিকে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ রোববার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ‘তিনি (পররাষ্ট্রমন্ত্রী) বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় সংসদ-সদস্য অবশ্যই। কিন্তু বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির তো কেউ নন। যেহেতেু কেন্দ্রীয় কমিটির কেউ নন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষে বিদেশে গিয়ে কিছু বলা, সে দায়িত্ব আওয়ামী লীগ কাউকে দেয়নি, ওনাকেও (এ কে আব্দুল মোমেন) দেয়নি। কাজে তিনি (আবদুর রহমান) সঠিক বলেছেন।’

বৃহস্পতিবার রাতে চট্টগ্রামে এক অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে গিয়ে অনেকের সঙ্গে আমার দেখা হয়। আমি দেশটিতে গিয়ে বলেছি, শেখ হাসিনাকে টিকিয়ে রাখতে হবে। আজকে অনেকের বক্তব্যে সেটাই এসেছে। শেখ হাসিনা আমাদের আদর্শ। তাকে টিকিয়ে রাখার জন্য যা যা করা দরকার, আমি ভারতবর্ষের সরকারকে সেটা করতে অনুরোধ করেছি।’

আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় টিকিয়ে রাখার ব্যাপারে ভারতের ভূমিকা সম্পর্কিত পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের ওই বক্তব্য শুক্রবার দেশের সব জাতীয় দৈনিক গুরুত্ব দিয়ে প্রকাশ করে। এরপরই শুরু হয় সমালোচনা, যা এখনো অব্যাহত রয়েছে। বিতর্কিত বক্তব্য দিয়ে শপথ ভঙ্গ এবং সংবিধান লঙ্ঘনের অভিযোগ এনে রোববার পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেনকে লিগ্যাল নোটিশ দিয়েছেন একজন আইনজীবী। ওই নোটিশে তাকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে পদত্যাগ করতে বলা হয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার.....

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরো খবর.....